ঢাকা ১১:৪১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘অস্বাস্থ্যকর ও নিম্নমানের খাবারে বিপাকে জাককানইবি শিক্ষার্থীরা’

আসাদুল্লাহ আল গালিব, নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়

হলের ডাইনিং ও ক্যান্টিনে খাবারের মান নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ময়মনসিংহের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়েটির হলগুলোতে যে ধরনের খাবার পরিবেশন হয়, তা খুবই নিম্নমানের। খাবার ক্যান্টিনে ঢুকতেই নাকে আসবে উৎকট গন্ধ। অপরিচ্ছন্ন টেবিল ও প্লেটভরা খাবারের ওপর মাছি। টেবিলগুলো পরিষ্কারে ব্যবহার করা হয় দুর্গন্ধযুক্ত অপরিচ্ছন্ন-স্যাঁতস্যাঁতে কাপড়। ধুলোয় ঢাকা প্রায় অন্ধকারাচ্ছন্ন স্যাঁতস্যাঁতে রান্নাঘরের চারপাশে বর্জ্য-ময়লা ছড়ানো-ছিটানো। এক কথায়, রান্না, খাবার সংরক্ষণ ও পরিবেশন, সবটাই অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে।

শুনতে খারাপ লাগলেও সত্যি, মাছ ও মাংসের কিছু পদে মাছ-মাংসের উপস্থিতি থাকলেও তা নামমাত্র। সঙ্গত কারণেই খাবারের মান নিয়ে বিস্তর অভিযোগ শিক্ষার্থীদের, অসন্তুষ্ট তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়টির জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের হলের শিক্ষার্থী শরিফুল ইসলামের অভিযোগ, হলের ক্যান্টিনের খাবারের মান নিয়ে আমরা সন্তুষ্ট নই। খাবারের দামের তুলনায় মান অত্যন্ত বাজে।

তিনি এ প্রসঙ্গে আরও বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য হল ক্যান্টিনগুলোর খাবারের মানও এমনই। এই খাবার কতটা স্বাস্থ্যসম্মত, তা নিয়েও প্রশ্ন রয়েছে।”

আরেক শিক্ষার্থী সাদিয়া জান্নাত মিলির ভাষ্য, “হলের খাবার খেয়ে অ্যাসিডিটিতে ভুগতে হয় এখন। খাবারে স্বাদ-মান কোনোটাই নাই।”

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৫:৩০:১০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২৩
২১১ বার পড়া হয়েছে

‘অস্বাস্থ্যকর ও নিম্নমানের খাবারে বিপাকে জাককানইবি শিক্ষার্থীরা’

আপডেট সময় ০৫:৩০:১০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২৩

হলের ডাইনিং ও ক্যান্টিনে খাবারের মান নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ময়মনসিংহের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়েটির হলগুলোতে যে ধরনের খাবার পরিবেশন হয়, তা খুবই নিম্নমানের। খাবার ক্যান্টিনে ঢুকতেই নাকে আসবে উৎকট গন্ধ। অপরিচ্ছন্ন টেবিল ও প্লেটভরা খাবারের ওপর মাছি। টেবিলগুলো পরিষ্কারে ব্যবহার করা হয় দুর্গন্ধযুক্ত অপরিচ্ছন্ন-স্যাঁতস্যাঁতে কাপড়। ধুলোয় ঢাকা প্রায় অন্ধকারাচ্ছন্ন স্যাঁতস্যাঁতে রান্নাঘরের চারপাশে বর্জ্য-ময়লা ছড়ানো-ছিটানো। এক কথায়, রান্না, খাবার সংরক্ষণ ও পরিবেশন, সবটাই অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে।

শুনতে খারাপ লাগলেও সত্যি, মাছ ও মাংসের কিছু পদে মাছ-মাংসের উপস্থিতি থাকলেও তা নামমাত্র। সঙ্গত কারণেই খাবারের মান নিয়ে বিস্তর অভিযোগ শিক্ষার্থীদের, অসন্তুষ্ট তারা।

বিশ্ববিদ্যালয়টির জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের হলের শিক্ষার্থী শরিফুল ইসলামের অভিযোগ, হলের ক্যান্টিনের খাবারের মান নিয়ে আমরা সন্তুষ্ট নই। খাবারের দামের তুলনায় মান অত্যন্ত বাজে।

তিনি এ প্রসঙ্গে আরও বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য হল ক্যান্টিনগুলোর খাবারের মানও এমনই। এই খাবার কতটা স্বাস্থ্যসম্মত, তা নিয়েও প্রশ্ন রয়েছে।”

আরেক শিক্ষার্থী সাদিয়া জান্নাত মিলির ভাষ্য, “হলের খাবার খেয়ে অ্যাসিডিটিতে ভুগতে হয় এখন। খাবারে স্বাদ-মান কোনোটাই নাই।”