ঢাকা ০৬:০৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইবিতে প্রথমবারের মতো ডীন’স লিস্ট অ্যাওয়ার্ড প্রদান

ওয়াসিফ আল আবরার, ইবি

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) প্রতিষ্ঠার সাড়ে চার দশক পর প্রথমবারের মতো স্নাতক (সম্মান) পর্যায়ে কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জন করায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কর্তৃক শিক্ষার্থীদের ডিন’স লিস্ট অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে।

 

রবিবার (১০ মার্চ) বেলা ১১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে ৮ টি অনুষদের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের মোট ৩৩ জন কৃতি শিক্ষার্থীকে এই সম্মাননা প্রদান করা হয়। এসময় শিক্ষার্থীদের ক্রেস্ট, মেডেল ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ আলমগীর হোসেন ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ মাহবুবুর রহমান।

 

এছাড়াও সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন অধ্যাপক মোঃ সাইফুল ইসলাম, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এ.কে.এম. মতিনুর রহমান, জীব বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ রেজওয়ানুল ইসলাম, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক মোছাঃ কামরুন্নাহার, কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এমতাজ হোসেন, থিওলজি অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. আ.ব.ম. ছিদ্দিকুর রহমান আশ্রাফী, প্রকৌশন ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ মনজুরুল হক ও আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. খন্দকার তৌহিদুল আনাম।

 

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান বলেন, উপ-উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর আজকের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পেরে মনে হচ্ছে যে সর্বশ্রেষ্ঠ একটি আয়োজনে অংশ হতে পেরেছি। যারা আজকের অ্যাওয়ার্ড পায়নি তাদের মধ্যে একধরণের প্রেরণা তৈরি হবে, এতে পড়াশোনায় গতিশীলতা আসবে। ভালো মানুষ, যোগ্য মানুষ তৈরী হওয়ার একটি প্রতিযোগিতা সৃষ্টি হবে।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম বলেন, ফুল ফুটুক আর না ফুটুক আজ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বসন্ত। অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তদের অ্যাওয়ার্ড দেই আর নাই দেই তারাই সেরা। সমাবর্তনের পর ডিন’স লিস্ট একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রোগ্রাম যা আজ থেকে চালু হলো। আজ কৃতি শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি তাদের জন্ম দেয়া বাবা মায়েদের অভিনন্দন জানাই। যখন আমাদের কোন শিক্ষার্থী আমাদের ছাড়িয়ে এগিয়ে যায় তখন শিক্ষকরা গর্ববোধ করে। আমরাও যেন সেই গৌরবের অধিকারী হতে পারি সেই প্রত্যাশা করি।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৪:৪০:৫১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ মার্চ ২০২৪
৭৩ বার পড়া হয়েছে

ইবিতে প্রথমবারের মতো ডীন’স লিস্ট অ্যাওয়ার্ড প্রদান

আপডেট সময় ০৪:৪০:৫১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ মার্চ ২০২৪

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) প্রতিষ্ঠার সাড়ে চার দশক পর প্রথমবারের মতো স্নাতক (সম্মান) পর্যায়ে কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জন করায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কর্তৃক শিক্ষার্থীদের ডিন’স লিস্ট অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়েছে।

 

রবিবার (১০ মার্চ) বেলা ১১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে ৮ টি অনুষদের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের মোট ৩৩ জন কৃতি শিক্ষার্থীকে এই সম্মাননা প্রদান করা হয়। এসময় শিক্ষার্থীদের ক্রেস্ট, মেডেল ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।

 

বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ আলমগীর হোসেন ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ মাহবুবুর রহমান।

 

এছাড়াও সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন অধ্যাপক মোঃ সাইফুল ইসলাম, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এ.কে.এম. মতিনুর রহমান, জীব বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ রেজওয়ানুল ইসলাম, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক মোছাঃ কামরুন্নাহার, কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এমতাজ হোসেন, থিওলজি অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. আ.ব.ম. ছিদ্দিকুর রহমান আশ্রাফী, প্রকৌশন ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ মনজুরুল হক ও আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. খন্দকার তৌহিদুল আনাম।

 

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান বলেন, উপ-উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর আজকের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পেরে মনে হচ্ছে যে সর্বশ্রেষ্ঠ একটি আয়োজনে অংশ হতে পেরেছি। যারা আজকের অ্যাওয়ার্ড পায়নি তাদের মধ্যে একধরণের প্রেরণা তৈরি হবে, এতে পড়াশোনায় গতিশীলতা আসবে। ভালো মানুষ, যোগ্য মানুষ তৈরী হওয়ার একটি প্রতিযোগিতা সৃষ্টি হবে।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম বলেন, ফুল ফুটুক আর না ফুটুক আজ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বসন্ত। অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তদের অ্যাওয়ার্ড দেই আর নাই দেই তারাই সেরা। সমাবর্তনের পর ডিন’স লিস্ট একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রোগ্রাম যা আজ থেকে চালু হলো। আজ কৃতি শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি তাদের জন্ম দেয়া বাবা মায়েদের অভিনন্দন জানাই। যখন আমাদের কোন শিক্ষার্থী আমাদের ছাড়িয়ে এগিয়ে যায় তখন শিক্ষকরা গর্ববোধ করে। আমরাও যেন সেই গৌরবের অধিকারী হতে পারি সেই প্রত্যাশা করি।