ঢাকা ০৪:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

উত্তপ্ত শহর নারীদের জন্য বসবাসের অযোগ্য: চিফ হিট অফিসার

নিজস্ব সংবাদ

 

 

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের চিফ হিট অফিসার বুশরা আফরিন বলেছেন, ‘উত্তপ্ত শহর নারীদের জন্য বসবাসের অযোগ্য। তাই তাপপ্রবাহের মধ্যে নারীদের সুবিধার জন্য কিছু কাজ আমরা শুরু করেছি। যাতে নারীরা তীব্র গরমে কিছুটা হলেও স্বস্তি পান। আমরা বাস স্টপেজগুলোতে পানি সরবরাহের ব্যবস্থা করছি।

একই সঙ্গে আমরা নারীবান্ধব শৌচাগার করার বিষয়ে কাজ করছি, যাতে দৈনন্দিন চলার পথে তারা সহজেই স্বস্তি ও সুরক্ষা পান।’ শুক্রবার (৩ মে) জর্জিয়ায় অনুষ্ঠিত এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) ৫৭তম বার্ষিক সভায় প্যানেলিস্ট হিসেবে এক অধিবেশনে যোগ দিয়ে তিনি এ সব কথা বলেন।

বুশরা আফরিন বলেন, ‘তাপের হুমকি মোকাবেলা এবং ঢাকার জন্য একটি টেকসই ও শীতল ভবিষ্যৎ তৈরি করার জন্য আমাদের যাত্রা শুরু মাত্র। ২০২৩ সাল ছিল বাংলাদেশে সবচেয়ে উষ্ণতম বছর এবং গত মাসে ঢাকায় তাপপ্রবাহ আগের চেয়ে বেশি ও তীব্র ছিল।

তিনি আরো বলেন, ‘গত কয়েক দিন অনেক বেশি তাপ ছিল। তাপের প্রভাবে শ্বাস বন্ধ হয়ে যাওয়ার মতো পরিস্থিতি অনুভূত হয়। প্রধান হিট অফিসার হিসেবে, আমি অনানুষ্ঠানিক বসতিতে বসবাসকারী (বস্তিতে বসবাসকারী) নারীদের ওপর এই তাপমাত্রার প্রভাব পর্যবেক্ষণ করেছি। গরমে তাদের নিঃশ্বাস নিতেও কষ্ট হচ্ছিল।

চিফ হিট অফিসার বলেন, ‘এবারের গরমের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করায় নারীদের কাজের পাশাপাশি শিশুযত্ন নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে। যা তাদের এমন একটি শহরে আরো প্রান্তিক করেছে। আমাদের জোর প্রচেষ্টা রয়েছে সেই ব্যবধানটি কমানোর এবং সেই বিষয়গুলো চিহ্নিত করে কাজ করার, যে বিষয়গুলো আমাদের শহরটিকে নারীদের জন্য বসবাসের অযোগ্য করে তোলে। সর্বোপরি আমরা নারীদের প্রতিদিন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ও তাপপ্রবাহের সময় তাদের যে ঝুঁকির সম্মুখীন হতে হয় তা চিহ্নিত করার কাজ করছি।’

প্রসঙ্গত, ওয়াশিংটনভিত্তিক অলাভজনক সংস্থা আর্শট-রক ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকায় কর্মরত সামাজিক উদ্যোক্তা বুশরা আফরিনকে চিফ হিট অফিসার হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ১১:৩০:৩৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মে ২০২৪
৬৬ বার পড়া হয়েছে

উত্তপ্ত শহর নারীদের জন্য বসবাসের অযোগ্য: চিফ হিট অফিসার

আপডেট সময় ১১:৩০:৩৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মে ২০২৪

 

 

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের চিফ হিট অফিসার বুশরা আফরিন বলেছেন, ‘উত্তপ্ত শহর নারীদের জন্য বসবাসের অযোগ্য। তাই তাপপ্রবাহের মধ্যে নারীদের সুবিধার জন্য কিছু কাজ আমরা শুরু করেছি। যাতে নারীরা তীব্র গরমে কিছুটা হলেও স্বস্তি পান। আমরা বাস স্টপেজগুলোতে পানি সরবরাহের ব্যবস্থা করছি।

একই সঙ্গে আমরা নারীবান্ধব শৌচাগার করার বিষয়ে কাজ করছি, যাতে দৈনন্দিন চলার পথে তারা সহজেই স্বস্তি ও সুরক্ষা পান।’ শুক্রবার (৩ মে) জর্জিয়ায় অনুষ্ঠিত এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) ৫৭তম বার্ষিক সভায় প্যানেলিস্ট হিসেবে এক অধিবেশনে যোগ দিয়ে তিনি এ সব কথা বলেন।

বুশরা আফরিন বলেন, ‘তাপের হুমকি মোকাবেলা এবং ঢাকার জন্য একটি টেকসই ও শীতল ভবিষ্যৎ তৈরি করার জন্য আমাদের যাত্রা শুরু মাত্র। ২০২৩ সাল ছিল বাংলাদেশে সবচেয়ে উষ্ণতম বছর এবং গত মাসে ঢাকায় তাপপ্রবাহ আগের চেয়ে বেশি ও তীব্র ছিল।

তিনি আরো বলেন, ‘গত কয়েক দিন অনেক বেশি তাপ ছিল। তাপের প্রভাবে শ্বাস বন্ধ হয়ে যাওয়ার মতো পরিস্থিতি অনুভূত হয়। প্রধান হিট অফিসার হিসেবে, আমি অনানুষ্ঠানিক বসতিতে বসবাসকারী (বস্তিতে বসবাসকারী) নারীদের ওপর এই তাপমাত্রার প্রভাব পর্যবেক্ষণ করেছি। গরমে তাদের নিঃশ্বাস নিতেও কষ্ট হচ্ছিল।

চিফ হিট অফিসার বলেন, ‘এবারের গরমের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করায় নারীদের কাজের পাশাপাশি শিশুযত্ন নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে। যা তাদের এমন একটি শহরে আরো প্রান্তিক করেছে। আমাদের জোর প্রচেষ্টা রয়েছে সেই ব্যবধানটি কমানোর এবং সেই বিষয়গুলো চিহ্নিত করে কাজ করার, যে বিষয়গুলো আমাদের শহরটিকে নারীদের জন্য বসবাসের অযোগ্য করে তোলে। সর্বোপরি আমরা নারীদের প্রতিদিন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ও তাপপ্রবাহের সময় তাদের যে ঝুঁকির সম্মুখীন হতে হয় তা চিহ্নিত করার কাজ করছি।’

প্রসঙ্গত, ওয়াশিংটনভিত্তিক অলাভজনক সংস্থা আর্শট-রক ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকায় কর্মরত সামাজিক উদ্যোক্তা বুশরা আফরিনকে চিফ হিট অফিসার হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে।