ঢাকা ০৬:৫৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ওএমএস কর্মসূচির আওতায় ন্যায্যমূল্যে চাল ও আটা বিক্রি

মামুনুর রশীদ রাজু, ব্যুরো চিফ (খুলনা)

নিম্ন আয়ের মানুষকে স্বস্তি দিতে চাল ও আটা খোলা বাজারে বিক্রি কার্যক্রম (ওএমএস) এগিয়ে চলছে। সপ্তাহে একদিন কার্ডের মাধ্যমে সুবিধাভোগীরা এই সেবা গ্রহণ করতে পারছেন।

মঙ্গলবার (২৮ মে) সকালে খুলনার খালিশপুর চরেরহাট মোড়ে ওএমএস কার্ডের মাধ্যমে সুবিধাভোগীদের কাছে ন্যায্যমূল্যে চাল ও আটা বিক্রি করতে দেখা যায়।

ওএমএস চাল ক্রয় করতে এসে সুবিধাভোগীরা বলেন, প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের-এর আওতায় চাল কিনতে পেরে আমরা খুশি। আমাদের দাবি এ ওএমএস কার্যক্রমটি যেন অব্যাহত থাকে।

এলাকাবাসী মোঃ রাজু ও সন্দীপ বলেন এখানে ওএমএস এর কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে বন্টন হয়ে থাকে। ক্রেতাদের কাছে সম্পূর্ণ পণ্য বিক্রি না করে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কোনো রেকর্ড নেই ওএমএস’র প্রতিষ্ঠানে।

ওএমএস পণ্য বিক্রি কার্যক্রম পরিচালনার পক্ষে মোঃ শিমুল বলেন, ‘আগে এলে আগে পাবেন’ ভিত্তিতে পণ্য বিক্রয়ের যে নিয়ম এখানে তা সুবিধাভোগীরাসহ আমরাও খুব আনন্দের সাথে উপোভোগ করি। দূর দূরান্ত থেকেও মানুষ (ওএমএস কার্ডধারী) আমাদের এখানে আসেন ওএমএস পণ্য ক্রয় করতে।

ওএমএস বিক্রয় কার্যক্রমে নিযুক্ত ডিলার ও খাদ্য বিভাগের খাদ্য পরিদর্শক ছাড়াও পণ্যের সুষ্ঠু বিতরণে সহযোগিতা ও দেখভালে সমাজের বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিবর্গ উপস্থিতি ছিলেন খুলনা খালিশপুর চরেরহাট মোড়ে আজকের আয়োজনে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৫:৫৮:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪
৭৯ বার পড়া হয়েছে

ওএমএস কর্মসূচির আওতায় ন্যায্যমূল্যে চাল ও আটা বিক্রি

আপডেট সময় ০৫:৫৮:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

নিম্ন আয়ের মানুষকে স্বস্তি দিতে চাল ও আটা খোলা বাজারে বিক্রি কার্যক্রম (ওএমএস) এগিয়ে চলছে। সপ্তাহে একদিন কার্ডের মাধ্যমে সুবিধাভোগীরা এই সেবা গ্রহণ করতে পারছেন।

মঙ্গলবার (২৮ মে) সকালে খুলনার খালিশপুর চরেরহাট মোড়ে ওএমএস কার্ডের মাধ্যমে সুবিধাভোগীদের কাছে ন্যায্যমূল্যে চাল ও আটা বিক্রি করতে দেখা যায়।

ওএমএস চাল ক্রয় করতে এসে সুবিধাভোগীরা বলেন, প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের-এর আওতায় চাল কিনতে পেরে আমরা খুশি। আমাদের দাবি এ ওএমএস কার্যক্রমটি যেন অব্যাহত থাকে।

এলাকাবাসী মোঃ রাজু ও সন্দীপ বলেন এখানে ওএমএস এর কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে বন্টন হয়ে থাকে। ক্রেতাদের কাছে সম্পূর্ণ পণ্য বিক্রি না করে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কোনো রেকর্ড নেই ওএমএস’র প্রতিষ্ঠানে।

ওএমএস পণ্য বিক্রি কার্যক্রম পরিচালনার পক্ষে মোঃ শিমুল বলেন, ‘আগে এলে আগে পাবেন’ ভিত্তিতে পণ্য বিক্রয়ের যে নিয়ম এখানে তা সুবিধাভোগীরাসহ আমরাও খুব আনন্দের সাথে উপোভোগ করি। দূর দূরান্ত থেকেও মানুষ (ওএমএস কার্ডধারী) আমাদের এখানে আসেন ওএমএস পণ্য ক্রয় করতে।

ওএমএস বিক্রয় কার্যক্রমে নিযুক্ত ডিলার ও খাদ্য বিভাগের খাদ্য পরিদর্শক ছাড়াও পণ্যের সুষ্ঠু বিতরণে সহযোগিতা ও দেখভালে সমাজের বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিবর্গ উপস্থিতি ছিলেন খুলনা খালিশপুর চরেরহাট মোড়ে আজকের আয়োজনে।