ঢাকা ০৫:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কোটচাঁদপুরে গুপ্তহত্যা করা হচ্ছে রাস্তার সরকারী গাছ

জাহাঙ্গীর আলম, কোটচাঁদপুর, ঝিনাইদহ
ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার বিভিন্ন সরকারী রাস্তার পাশে পুরাতন বড় বড় গাছ গুলো  নিরবে গুপ্তহত্যা করছে কুচক্রী মহল। কৌশলে গাছের গুড়ির চারপাশে ছাল কেটে মাখিয়ে রাখা হচ্ছে ঘাসপুড়া বিষ।  ধিরে ধিরে মরতে থাকে গাছ গুলো। দীর্ঘদিন যাবত এমন অপকর্ম চললেও দেখার যেন কেউ নেই।  নজরে আসেনি সরকারী কোন কর্তৃপক্ষের।
সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায় শতাধিক গাছ মারা গেছে এবং বহু গাছ মৃত্যুর প্রহর গুনছে। কোটচাঁদপুর টু সাবদারপুর রোড, জালালপুর রোড, গুড়পাড়া রোড, কুশনা- তালসার রোড, বহরমপুর মাঠের রাস্তাসহ অনেক জায়গায় রাস্তার দু’পাশে  সরকারী ব্যবস্থাপনায় লাগানো কড়ই, মেহগনি, নিম, শিমুল, বাবলাসহ বিভিন্ন প্রকার বড় বড় গাছ গুলো স্থানীয়  পাশের জমির মালিকপক্ষ কর্তৃক কৌশলে হত্যার স্বীকার হচ্ছে বছরের পর বছর। অথচ যাদের কে দেখভালের জন্য রাখা হয়েছে তারা কিছুই জানেন না বলে জানান।
এ বিষয়ে কথা বলা হয় কোটচাঁদপুর বন বিভাগের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ শফিকুল ইসলামের সাথে। তিনি জানান লোক বলের অভাব এবং মহেশপুর ও কালীগঞ্জ উপজেলার অতিরিক্ত দায়িত্ব পালনের কারণে সব কিছু সঠিকভাবে দেখা সম্ভব হচ্ছেনা।  তবে এখন থেকে দেখবেন বলে জানান। কোটচাঁদপুর এলাকায় রাস্তার পাশে সরকারী গাছ গুলো সীল মেরে নাম্বারিং করার কথা থাকলেও তা করা হয়নি বহু বছর যাবত এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন আমিসহ মোট ৫ জন জনবল আছি এ অফিসে। নার্সারিতে গাছের চারা উৎপাদন পরিচর্চা ও সরকার নির্ধারিত মূলে বিক্রয় করা হয়। পাশাপাশি উপজেলার সকল ইউনিয়নসহ রাস্তার পাশের গাছ গুলো বিভিন্ন সমিতির মাধ্যমে আমরা দেখাশুনা করে থাকি। এলাকা বড় জনবল কম   সে কারনে সময় পাওয়া যায় না।
সঠিকভাবে  তদারকি না করা এবং কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণে সরকারী এ সব গাছ হত্যা করেও পার পেয়ে যাচ্ছে  অপরাধীরা। খুয়ানো যাচ্ছে সরকারের বিপুল পরিমান সম্পদ। আর নষ্ট হচ্ছে প্রকৃতিক পরিবেশ। চলাচলের রাস্তার উপর মরা এ সব গাছ গুলো খাঁড়ার ঘা হয়ে ঘটছে  দূর্ঘটনা বাড়ছে দূর্ভোগ। এ বিষয়ে যথাযথা ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবী জানিয়েছেন পরিবেশবাদী ও এলাকার সচেতন মহল।
ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০২:৪৫:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২৩
১৫৪ বার পড়া হয়েছে

কোটচাঁদপুরে গুপ্তহত্যা করা হচ্ছে রাস্তার সরকারী গাছ

আপডেট সময় ০২:৪৫:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২৩
ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার বিভিন্ন সরকারী রাস্তার পাশে পুরাতন বড় বড় গাছ গুলো  নিরবে গুপ্তহত্যা করছে কুচক্রী মহল। কৌশলে গাছের গুড়ির চারপাশে ছাল কেটে মাখিয়ে রাখা হচ্ছে ঘাসপুড়া বিষ।  ধিরে ধিরে মরতে থাকে গাছ গুলো। দীর্ঘদিন যাবত এমন অপকর্ম চললেও দেখার যেন কেউ নেই।  নজরে আসেনি সরকারী কোন কর্তৃপক্ষের।
সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায় শতাধিক গাছ মারা গেছে এবং বহু গাছ মৃত্যুর প্রহর গুনছে। কোটচাঁদপুর টু সাবদারপুর রোড, জালালপুর রোড, গুড়পাড়া রোড, কুশনা- তালসার রোড, বহরমপুর মাঠের রাস্তাসহ অনেক জায়গায় রাস্তার দু’পাশে  সরকারী ব্যবস্থাপনায় লাগানো কড়ই, মেহগনি, নিম, শিমুল, বাবলাসহ বিভিন্ন প্রকার বড় বড় গাছ গুলো স্থানীয়  পাশের জমির মালিকপক্ষ কর্তৃক কৌশলে হত্যার স্বীকার হচ্ছে বছরের পর বছর। অথচ যাদের কে দেখভালের জন্য রাখা হয়েছে তারা কিছুই জানেন না বলে জানান।
এ বিষয়ে কথা বলা হয় কোটচাঁদপুর বন বিভাগের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ শফিকুল ইসলামের সাথে। তিনি জানান লোক বলের অভাব এবং মহেশপুর ও কালীগঞ্জ উপজেলার অতিরিক্ত দায়িত্ব পালনের কারণে সব কিছু সঠিকভাবে দেখা সম্ভব হচ্ছেনা।  তবে এখন থেকে দেখবেন বলে জানান। কোটচাঁদপুর এলাকায় রাস্তার পাশে সরকারী গাছ গুলো সীল মেরে নাম্বারিং করার কথা থাকলেও তা করা হয়নি বহু বছর যাবত এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন আমিসহ মোট ৫ জন জনবল আছি এ অফিসে। নার্সারিতে গাছের চারা উৎপাদন পরিচর্চা ও সরকার নির্ধারিত মূলে বিক্রয় করা হয়। পাশাপাশি উপজেলার সকল ইউনিয়নসহ রাস্তার পাশের গাছ গুলো বিভিন্ন সমিতির মাধ্যমে আমরা দেখাশুনা করে থাকি। এলাকা বড় জনবল কম   সে কারনে সময় পাওয়া যায় না।
সঠিকভাবে  তদারকি না করা এবং কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণে সরকারী এ সব গাছ হত্যা করেও পার পেয়ে যাচ্ছে  অপরাধীরা। খুয়ানো যাচ্ছে সরকারের বিপুল পরিমান সম্পদ। আর নষ্ট হচ্ছে প্রকৃতিক পরিবেশ। চলাচলের রাস্তার উপর মরা এ সব গাছ গুলো খাঁড়ার ঘা হয়ে ঘটছে  দূর্ঘটনা বাড়ছে দূর্ভোগ। এ বিষয়ে যথাযথা ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবী জানিয়েছেন পরিবেশবাদী ও এলাকার সচেতন মহল।