ঢাকা ০৯:১৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গণতন্ত্র মঞ্চের সচিবালয় ঘেরাও কর্মসূচি পুলিশি বাধা

নিজস্ব সংবাদ

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, ব্যাংক লোপাট ও অর্থ পাচারের প্রতিবাদে সচিবালয় অভিমুখে গণতন্ত্র মঞ্চের বিক্ষোভ মিছিলে দুই দফা লাঠি চার্জ করেছে পুলিশ। এ সময় পুলিশের লাঠি চার্জে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকিসহ বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

 

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, ব্যাংক লোপাট ও অর্থ পাচারের প্রতিবাদে সমাবেশ করে গণতন্ত্র মঞ্চ। সমাবেশ শেষে সচিবালয় অভিমুখে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে গুলিস্থানের জিরো পয়েন্টে পৌঁছালে পুলিশের ব্যারিকেডের মুখে পড়ে। এ সময় মঞ্চের নেতাকর্মীরা ব্যারিকেড ভাঙতে চাইলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়। এ সময় নেতাকর্মীদের ওপর চড়াও হয় পুলিশ।

 

দেখা যায়, গণতন্ত্র মঞ্চের নেতাকর্মীদের পুলিশ বাধা দিতে চাইলে তারা পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। এ সময় পুলিশ প্রথম দফা লাঠি চার্জ করে। এতে গণতন্ত্র মঞ্চের অন্যতম নেতা জোনায়েদ সাকিসহ বেশ কয়েকজন আহত হন। গণতন্ত্র মঞ্চের নেতাকর্মীরাও পুলিশের ওপর চড়াও হন।

ডিএমপির রমনা জোনের এডিসি বলেন, গণতন্ত্র মঞ্চের নেতারা অনুমতি ছাড়াই এখানে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে এসেছেন।  আমরা তাদের বারবার বলেছি যে, তাদের এখানে অনুমতি নেই। কিন্তু ওনারা আমাদের কথা শুনেননি। ওনারা আমাদের কথা দিয়েছিলেন যে ওনারা সচিবালয়ের সামনে এসে শান্তিপূর্ণ মিছিল করে চলে যাবেন। কিন্তু ওনারা আমাদের দেওয়া ব্যারিকেড অতিক্রম করে সচিবালায় ঢোকার চেষ্টা করেছেন। আমরা বারবার বোঝানোর চেষ্টা করা হলেও ওনারা ব্যারিকেড ভেঙে ভেতরে ঢুকতে চেয়েছেন।

কত জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন তা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ওনারা বলছেন ৫০ জন আহত হয়েছেন কিন্তু আপনারা ভিডিও দেখলে এটা বিশ্লেষণ করতে পারবেন যে, আসলে ওনারা ৫০ জন ছিলেন কিনা। আর আমাদের কতজন আহত হয়েছেন তা এখনো নিশ্চিতভাবে বলতে পারছি না।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৩:৩৬:২৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
৮৪ বার পড়া হয়েছে

গণতন্ত্র মঞ্চের সচিবালয় ঘেরাও কর্মসূচি পুলিশি বাধা

আপডেট সময় ০৩:৩৬:২৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, ব্যাংক লোপাট ও অর্থ পাচারের প্রতিবাদে সচিবালয় অভিমুখে গণতন্ত্র মঞ্চের বিক্ষোভ মিছিলে দুই দফা লাঠি চার্জ করেছে পুলিশ। এ সময় পুলিশের লাঠি চার্জে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকিসহ বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

 

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, ব্যাংক লোপাট ও অর্থ পাচারের প্রতিবাদে সমাবেশ করে গণতন্ত্র মঞ্চ। সমাবেশ শেষে সচিবালয় অভিমুখে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে গুলিস্থানের জিরো পয়েন্টে পৌঁছালে পুলিশের ব্যারিকেডের মুখে পড়ে। এ সময় মঞ্চের নেতাকর্মীরা ব্যারিকেড ভাঙতে চাইলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়। এ সময় নেতাকর্মীদের ওপর চড়াও হয় পুলিশ।

 

দেখা যায়, গণতন্ত্র মঞ্চের নেতাকর্মীদের পুলিশ বাধা দিতে চাইলে তারা পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। এ সময় পুলিশ প্রথম দফা লাঠি চার্জ করে। এতে গণতন্ত্র মঞ্চের অন্যতম নেতা জোনায়েদ সাকিসহ বেশ কয়েকজন আহত হন। গণতন্ত্র মঞ্চের নেতাকর্মীরাও পুলিশের ওপর চড়াও হন।

ডিএমপির রমনা জোনের এডিসি বলেন, গণতন্ত্র মঞ্চের নেতারা অনুমতি ছাড়াই এখানে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে এসেছেন।  আমরা তাদের বারবার বলেছি যে, তাদের এখানে অনুমতি নেই। কিন্তু ওনারা আমাদের কথা শুনেননি। ওনারা আমাদের কথা দিয়েছিলেন যে ওনারা সচিবালয়ের সামনে এসে শান্তিপূর্ণ মিছিল করে চলে যাবেন। কিন্তু ওনারা আমাদের দেওয়া ব্যারিকেড অতিক্রম করে সচিবালায় ঢোকার চেষ্টা করেছেন। আমরা বারবার বোঝানোর চেষ্টা করা হলেও ওনারা ব্যারিকেড ভেঙে ভেতরে ঢুকতে চেয়েছেন।

কত জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন তা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ওনারা বলছেন ৫০ জন আহত হয়েছেন কিন্তু আপনারা ভিডিও দেখলে এটা বিশ্লেষণ করতে পারবেন যে, আসলে ওনারা ৫০ জন ছিলেন কিনা। আর আমাদের কতজন আহত হয়েছেন তা এখনো নিশ্চিতভাবে বলতে পারছি না।