ঢাকা ১২:৩৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গর্ভের শিশুর লিঙ্গ না প্রকাশ করার হাইকোর্টের নির্দেশ

নিজস্ব সংবাদ

মায়ের গর্ভে থাকা শিশুর লিঙ্গ শনাক্ত ও পরিচয় প্রকাশ করা যাবে না বলে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট। গর্ভের শিশুর লিঙ্গ পরিচয় রোধে নীতিমালা বা নির্দেশনা তৈরি করতে বিবাদীদের ব্যর্থতা কেন অবৈধ ও আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে জারি রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে এ রায় দেন আদালত।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) হাইকোর্টের বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি কাজী জিনাত হকের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ইশরাত হাসান। অন্যদিকে, রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাস গুপ্ত। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী তীর্থ সলিল রায়।

রিটকারী আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, এ সংক্রান্ত এক রিটের রুল নিষ্পত্তি করে এবং বিষয়টিকে চলমান বিচার্য বিষয় (কন্টিনিউয়াস ম্যান্ডামাস) রেখে এ রায় ঘোষণা করেছেন উচ্চ আদালত।

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি চূড়ান্ত শুনানি শেষে গর্ভের শিশুর লিঙ্গ-পরিচয় শনাক্তরোধ প্রশ্নে রুলের ওপর রায়ের জন্য ২৫ ফেব্রুয়ারি দিন রেখেছিলেন হাইকোর্ট।

এর আগে গর্ভের শিশুর লিঙ্গ পরিচয় রোধে নীতিমালা বা নির্দেশনা তৈরি করতে বিবাদীদের ব্যর্থতা কেন অবৈধ ও আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে অনাগত শিশুর লিঙ্গ পরিচয় নির্ধারণে নীতিমালা তৈরি করতে বিবাদীদের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে জারি করা রুলের শুনানির দিন ধার্য করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় এ শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট একই বেঞ্চে চূড়ান্ত শুনানির জন্য ঠিক করা হয়েছে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৬:২৭:০৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
৯২ বার পড়া হয়েছে

গর্ভের শিশুর লিঙ্গ না প্রকাশ করার হাইকোর্টের নির্দেশ

আপডেট সময় ০৬:২৭:০৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

মায়ের গর্ভে থাকা শিশুর লিঙ্গ শনাক্ত ও পরিচয় প্রকাশ করা যাবে না বলে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট। গর্ভের শিশুর লিঙ্গ পরিচয় রোধে নীতিমালা বা নির্দেশনা তৈরি করতে বিবাদীদের ব্যর্থতা কেন অবৈধ ও আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে জারি রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে এ রায় দেন আদালত।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) হাইকোর্টের বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি কাজী জিনাত হকের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রায় ঘোষণা করেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ইশরাত হাসান। অন্যদিকে, রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাস গুপ্ত। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী তীর্থ সলিল রায়।

রিটকারী আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, এ সংক্রান্ত এক রিটের রুল নিষ্পত্তি করে এবং বিষয়টিকে চলমান বিচার্য বিষয় (কন্টিনিউয়াস ম্যান্ডামাস) রেখে এ রায় ঘোষণা করেছেন উচ্চ আদালত।

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি চূড়ান্ত শুনানি শেষে গর্ভের শিশুর লিঙ্গ-পরিচয় শনাক্তরোধ প্রশ্নে রুলের ওপর রায়ের জন্য ২৫ ফেব্রুয়ারি দিন রেখেছিলেন হাইকোর্ট।

এর আগে গর্ভের শিশুর লিঙ্গ পরিচয় রোধে নীতিমালা বা নির্দেশনা তৈরি করতে বিবাদীদের ব্যর্থতা কেন অবৈধ ও আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে অনাগত শিশুর লিঙ্গ পরিচয় নির্ধারণে নীতিমালা তৈরি করতে বিবাদীদের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে জারি করা রুলের শুনানির দিন ধার্য করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় এ শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট একই বেঞ্চে চূড়ান্ত শুনানির জন্য ঠিক করা হয়েছে।