ঢাকা ০৫:৪৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাজায় নিহতের সংখ্যা প্রায় ১৮ হাজার: স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক :

গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলী হামলায় নিহতের সংখ্যা প্রায় ১৮ হাজারে পৌঁছেছে।

হামাস নিয়ন্ত্রিত গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ কথা জানিয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা তাস’র।

মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে আল জাজিরা টেলিভিশনের খবরে বলা হয়েছে, গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলী আগ্রাসনের কারণে প্রায় ১৮ হাজার লোক নিহত এবং ৫০ হাজার লোক আহত হয়েছে।

গত ২২ নভেম্বর হামাস ও ইসরায়েল একটি চুক্তির আওতায় চারদিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে। এতে মধ্যস্থতা করে মিসর ও কাতার। নভেম্বর ২৪ থেকে যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয় এবং পরে তা আরো বাড়ানো হয়। চুক্তি অনুযায়ী গাজায় আটক জিম্মি মুক্তির বিনিময়ে ফিলিস্তিনী বন্দীদের ছেড়ে দেয়া হয়।

যুদ্ধবিরতির চুক্তি হামাস লংঘন করেছে বলে অভিযোগ এনে ইসরায়েল ১ ডিসেম্বর থেকে আবারো হামলা শুরু করে। এ জন্যে ফিলিস্তিনী কর্তৃপক্ষ যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করেছে।

উল্লেখ্য, গত ৭ অক্টোবর হামাস ইসরায়েলে আকস্মিক বড়ো ধরনের হামলা চালায়। এতে ১২শ ইসরায়েলী নিহত হয়। এর পর পরই ইসরাইল গাজায় নির্বিচারে বোমা বর্ষণ ও পরে সর্বাত্মক হামলা শুরু করে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৬:৪৫:৪৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩
২০২ বার পড়া হয়েছে

গাজায় নিহতের সংখ্যা প্রায় ১৮ হাজার: স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

আপডেট সময় ০৬:৪৫:৪৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩

গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলী হামলায় নিহতের সংখ্যা প্রায় ১৮ হাজারে পৌঁছেছে।

হামাস নিয়ন্ত্রিত গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ কথা জানিয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা তাস’র।

মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে আল জাজিরা টেলিভিশনের খবরে বলা হয়েছে, গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলী আগ্রাসনের কারণে প্রায় ১৮ হাজার লোক নিহত এবং ৫০ হাজার লোক আহত হয়েছে।

গত ২২ নভেম্বর হামাস ও ইসরায়েল একটি চুক্তির আওতায় চারদিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে। এতে মধ্যস্থতা করে মিসর ও কাতার। নভেম্বর ২৪ থেকে যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয় এবং পরে তা আরো বাড়ানো হয়। চুক্তি অনুযায়ী গাজায় আটক জিম্মি মুক্তির বিনিময়ে ফিলিস্তিনী বন্দীদের ছেড়ে দেয়া হয়।

যুদ্ধবিরতির চুক্তি হামাস লংঘন করেছে বলে অভিযোগ এনে ইসরায়েল ১ ডিসেম্বর থেকে আবারো হামলা শুরু করে। এ জন্যে ফিলিস্তিনী কর্তৃপক্ষ যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করেছে।

উল্লেখ্য, গত ৭ অক্টোবর হামাস ইসরায়েলে আকস্মিক বড়ো ধরনের হামলা চালায়। এতে ১২শ ইসরায়েলী নিহত হয়। এর পর পরই ইসরাইল গাজায় নির্বিচারে বোমা বর্ষণ ও পরে সর্বাত্মক হামলা শুরু করে।