ঢাকা ০৮:৫৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাজায় যুদ্ধবিরতির সময় বাড়ল ১ দিন

দেশবার্তা ২৪ নিউজ, আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় সশস্ত্র হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যকার যুদ্ধবিরতি আরও একদিনের জন্য বাড়ানো হয়েছে। এর ফলে যুদ্ধবিরতির সময় বেড়ে গড়াল সপ্তম দিনে। এর আগে ২৭ নভেম্বর গাজায় মানবিক যুদ্ধবিরতির সময় বাড়ানো হয়েছিল দুই দিনের জন্যে। যার মেয়াদ আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় শেষ হবার কথা ছিল। খবর আল জাজিরা।

গত শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) গাজায় প্রথম দফায় চার দিনের যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয়। কাতারের মধ্যস্থতায় সাময়িক এ যুদ্ধবিরতির চুক্তি করে ইসরায়েল ও হামাস। চার দিনের এ যুদ্ধবিরতির শেষ দিন ২৭ নভেম্বর নতুন করে মানবিক বিরতি দুই দিন বাড়ানো হয়।। ওই বহুল প্রত্যাশিত চুক্তির তিন দিন দিনে ৩৯ ইসরায়েলিকে মুক্তি দেয় হামাস। অন্যদিকে, কারাগার থেকে ১১৭ জন ফিলিস্তিনিকে মুক্তি দিয়েছে তেল আবিব।

এদিকে, ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধবিরতির ষষ্ঠ দিনে ইসরায়েলের কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন ৩০ ফিলিস্তিনি বন্দী। অন্যদিকে গাজায় থাকা জিম্মিদের মধ্য থেকে ১২ ইসরায়েলিসহ ১৬ জনকে মুক্তি দিয়েছে হামাস।

ইসরায়েলি প্রিজন সার্ভিস জানিয়েছে, ইসরাইল ৩০ ফিলিস্তিনি বন্দীকে মুক্তি দিয়েছে। বেশ কয়েক ঘণ্টা বিলম্বের পর, ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ ফিলিস্তিনি বন্দীদের মুক্তি দিয়েছে। যদিও আগে এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, বিতুনিয়া শহরে ইসরায়েলি বাহিনী এবং ফিলিস্তিনিদের মধ্যে সংঘর্ষের কারণে ষষ্ঠ দফায় বন্দীদের মুক্তি বিলম্বিত হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলের অভ্যন্তরে হামলা চালায় ফিলিস্তিনের সশস্ত্র সংগঠন হামাস। ওই হামলায় ১২০০ ইসরায়েলি নিহত হয়, সেই সঙ্গে জিম্মি করা হয় ২৪০ জনকে। এরপরই গাজায় পাল্টা হামলা শুরু করে ইসরায়েল। দীর্ঘ প্রায় দুই মাস ধরে চলা এ যুদ্ধে প্রাণ হারিয়েছেন ১৫ হাজার ফিলিস্তিনি।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৬:৪৩:২৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩
২৫৬ বার পড়া হয়েছে

গাজায় যুদ্ধবিরতির সময় বাড়ল ১ দিন

আপডেট সময় ০৬:৪৩:২৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় সশস্ত্র হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যকার যুদ্ধবিরতি আরও একদিনের জন্য বাড়ানো হয়েছে। এর ফলে যুদ্ধবিরতির সময় বেড়ে গড়াল সপ্তম দিনে। এর আগে ২৭ নভেম্বর গাজায় মানবিক যুদ্ধবিরতির সময় বাড়ানো হয়েছিল দুই দিনের জন্যে। যার মেয়াদ আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় শেষ হবার কথা ছিল। খবর আল জাজিরা।

গত শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) গাজায় প্রথম দফায় চার দিনের যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয়। কাতারের মধ্যস্থতায় সাময়িক এ যুদ্ধবিরতির চুক্তি করে ইসরায়েল ও হামাস। চার দিনের এ যুদ্ধবিরতির শেষ দিন ২৭ নভেম্বর নতুন করে মানবিক বিরতি দুই দিন বাড়ানো হয়।। ওই বহুল প্রত্যাশিত চুক্তির তিন দিন দিনে ৩৯ ইসরায়েলিকে মুক্তি দেয় হামাস। অন্যদিকে, কারাগার থেকে ১১৭ জন ফিলিস্তিনিকে মুক্তি দিয়েছে তেল আবিব।

এদিকে, ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধবিরতির ষষ্ঠ দিনে ইসরায়েলের কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন ৩০ ফিলিস্তিনি বন্দী। অন্যদিকে গাজায় থাকা জিম্মিদের মধ্য থেকে ১২ ইসরায়েলিসহ ১৬ জনকে মুক্তি দিয়েছে হামাস।

ইসরায়েলি প্রিজন সার্ভিস জানিয়েছে, ইসরাইল ৩০ ফিলিস্তিনি বন্দীকে মুক্তি দিয়েছে। বেশ কয়েক ঘণ্টা বিলম্বের পর, ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ ফিলিস্তিনি বন্দীদের মুক্তি দিয়েছে। যদিও আগে এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, বিতুনিয়া শহরে ইসরায়েলি বাহিনী এবং ফিলিস্তিনিদের মধ্যে সংঘর্ষের কারণে ষষ্ঠ দফায় বন্দীদের মুক্তি বিলম্বিত হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলের অভ্যন্তরে হামলা চালায় ফিলিস্তিনের সশস্ত্র সংগঠন হামাস। ওই হামলায় ১২০০ ইসরায়েলি নিহত হয়, সেই সঙ্গে জিম্মি করা হয় ২৪০ জনকে। এরপরই গাজায় পাল্টা হামলা শুরু করে ইসরায়েল। দীর্ঘ প্রায় দুই মাস ধরে চলা এ যুদ্ধে প্রাণ হারিয়েছেন ১৫ হাজার ফিলিস্তিনি।