ঢাকা ০৫:৪২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গোপালগঞ্জ-১: নৌকা ও ঈগলের প্রার্থীর জনসভা, ১৪৪ ধারা জারি

মাইনুল ইসলাম রাজু

গোপালগঞ্জ-১ আসনের নৌকা ও ঈগল প্রতীকের প্রার্থী বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় মুকসুদপুর পাইলট বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনি জনসভা করার ঘোষণা দেন উভয় প্রার্থী। জনসভা আহ্বান করায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে জেলা প্রশাসন।  মঙ্গলবার ডিসি ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী মাহবুবুল আলম স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করেন জেলা প্রশাসক।

জেলার মুকসুদপুর ও কাশিয়ানী উপজেলার একাংশের এই আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মুহাম্মদ ফারুক খান (নৌকা) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. কাবির মিয়া (ঈগল)।

ওই চিঠিতে বলা হয়, স্বতন্ত্র প্রার্থী কাবির মিয়া বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় মুকসুদপুর পাইলট বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনি জনসভা করার ঘোষণা দেন। একই দিনে, একই সময়ে এবং একই স্থানে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মুহাম্মদ ফারুক খান নির্বাচনি সভা আহ্বান করেন। ফলে নির্বাচনি জনসভাকে কেন্দ্র করে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কা দেখা দিতে পারে। তাই আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের উদ্দেশ্যে জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী মাহবুবুল আলম।  ১৮৯৮ সালের ফৌজদারি কার্যবিধির ৩৬ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে মুকসুদপুর পৌরসভার মুকসুদপুর পাইলট বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ফৌজদারি কার্যবিধির ১৪৪ ধারা জারি করেছেন।

সেখানে আরও উল্লেখ করা হয়, উক্ত সময়ে ওই স্থানে যে কোনো ধরনের সমাবেশ, মিছিল, অস্ত্র ও বিস্ফোরক দ্রব্য বহন, মাইকিংসহ শান্তির বিঘ্নিত হয় এমন যেকোনো কাজ নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হল। একই সঙ্গে এলাকায় চারজনের অধিক ব্যক্তির চলাচল ও সমাবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল।

নির্বাচনি কাজে নিয়োজিত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের ক্ষেত্রে এ নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না।

উল্লেখ্য, এ আদেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে প্রযোজ্য আইনে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৮:৫০:২৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ জানুয়ারী ২০২৪
১৯ বার পড়া হয়েছে

গোপালগঞ্জ-১: নৌকা ও ঈগলের প্রার্থীর জনসভা, ১৪৪ ধারা জারি

আপডেট সময় ০৮:৫০:২৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ জানুয়ারী ২০২৪

গোপালগঞ্জ-১ আসনের নৌকা ও ঈগল প্রতীকের প্রার্থী বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় মুকসুদপুর পাইলট বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনি জনসভা করার ঘোষণা দেন উভয় প্রার্থী। জনসভা আহ্বান করায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে জেলা প্রশাসন।  মঙ্গলবার ডিসি ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী মাহবুবুল আলম স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করেন জেলা প্রশাসক।

জেলার মুকসুদপুর ও কাশিয়ানী উপজেলার একাংশের এই আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মুহাম্মদ ফারুক খান (নৌকা) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. কাবির মিয়া (ঈগল)।

ওই চিঠিতে বলা হয়, স্বতন্ত্র প্রার্থী কাবির মিয়া বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় মুকসুদপুর পাইলট বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনি জনসভা করার ঘোষণা দেন। একই দিনে, একই সময়ে এবং একই স্থানে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মুহাম্মদ ফারুক খান নির্বাচনি সভা আহ্বান করেন। ফলে নির্বাচনি জনসভাকে কেন্দ্র করে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কা দেখা দিতে পারে। তাই আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের উদ্দেশ্যে জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী মাহবুবুল আলম।  ১৮৯৮ সালের ফৌজদারি কার্যবিধির ৩৬ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে মুকসুদপুর পৌরসভার মুকসুদপুর পাইলট বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ফৌজদারি কার্যবিধির ১৪৪ ধারা জারি করেছেন।

সেখানে আরও উল্লেখ করা হয়, উক্ত সময়ে ওই স্থানে যে কোনো ধরনের সমাবেশ, মিছিল, অস্ত্র ও বিস্ফোরক দ্রব্য বহন, মাইকিংসহ শান্তির বিঘ্নিত হয় এমন যেকোনো কাজ নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হল। একই সঙ্গে এলাকায় চারজনের অধিক ব্যক্তির চলাচল ও সমাবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হল।

নির্বাচনি কাজে নিয়োজিত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের ক্ষেত্রে এ নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না।

উল্লেখ্য, এ আদেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে প্রযোজ্য আইনে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।