ঢাকা ০৯:২০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঘূর্ণিঝড় ’রিমাল’ এর প্রভাবে ক্ষয়ক্ষতির রিপোর্ট জানানোর নির্দেশ: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদ

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়কে আগামী রোববারের মধ্যে ঘূর্ণিঝড় ‘রিমাল’ এর ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কিত প্রতিবেদন প্রকাশের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সকল সরকারি কর্মকর্তাকে তাদের রুটিন কাজের পাশাপাশি ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার (২৮ মে) রাজধানীর এনইসি মিলনায়তনে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় সভাপতিত্বকালে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী আবদুস সালাম এবং পরিকল্পনা বিভাগের সিনিয়র সচিব সত্যজিৎ কর্মকার বৈঠক শেষে একনেক থেকে প্রধানমন্ত্রীর জারিকৃত সিদ্ধান্ত-সংক্রান্ত এই অনুলিপি প্রকাশ করেন।

রিমেলের কারণে অনেক বাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে মন্তব্য করে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এগুলো দ্রুত মেরামতের নির্দেশ দিয়েছেন। তাছাড়া প্রধানমন্ত্রী যত দ্রুত সম্ভব দুর্গত এলাকায় সুপেয় পানি সরবরাহের নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানান মন্ত্রী।

সত্যজিৎ কর্মকার বলেন, ঘূর্ণিঝড় রিমালের কারণে সৃষ্ট ক্ষয়ক্ষতি কমাতে এবং উপকূলীয় এলাকার মানুষকে নিরাপদ রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুপুর ২টা পর্যন্ত দুর্যোগ পর্যবেক্ষণ করেছেন। তিনি নিজেই ল্যান্ডলাইন ফোনে সংশ্লিষ্ট এলাকার সাথে যোগাযোগ করে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেছেন এবং সবার সাথে যোগাযোগ করেছেন।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৬:২৩:০৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪
৪৭ বার পড়া হয়েছে

ঘূর্ণিঝড় ’রিমাল’ এর প্রভাবে ক্ষয়ক্ষতির রিপোর্ট জানানোর নির্দেশ: প্রধানমন্ত্রী

আপডেট সময় ০৬:২৩:০৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়কে আগামী রোববারের মধ্যে ঘূর্ণিঝড় ‘রিমাল’ এর ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কিত প্রতিবেদন প্রকাশের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সকল সরকারি কর্মকর্তাকে তাদের রুটিন কাজের পাশাপাশি ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার (২৮ মে) রাজধানীর এনইসি মিলনায়তনে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় সভাপতিত্বকালে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী আবদুস সালাম এবং পরিকল্পনা বিভাগের সিনিয়র সচিব সত্যজিৎ কর্মকার বৈঠক শেষে একনেক থেকে প্রধানমন্ত্রীর জারিকৃত সিদ্ধান্ত-সংক্রান্ত এই অনুলিপি প্রকাশ করেন।

রিমেলের কারণে অনেক বাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে মন্তব্য করে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এগুলো দ্রুত মেরামতের নির্দেশ দিয়েছেন। তাছাড়া প্রধানমন্ত্রী যত দ্রুত সম্ভব দুর্গত এলাকায় সুপেয় পানি সরবরাহের নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানান মন্ত্রী।

সত্যজিৎ কর্মকার বলেন, ঘূর্ণিঝড় রিমালের কারণে সৃষ্ট ক্ষয়ক্ষতি কমাতে এবং উপকূলীয় এলাকার মানুষকে নিরাপদ রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুপুর ২টা পর্যন্ত দুর্যোগ পর্যবেক্ষণ করেছেন। তিনি নিজেই ল্যান্ডলাইন ফোনে সংশ্লিষ্ট এলাকার সাথে যোগাযোগ করে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেছেন এবং সবার সাথে যোগাযোগ করেছেন।