ঢাকা ০৮:০৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ট্রেনে, বাসে আগুন জ্বালিয়ে দেশজুড়ে ওরা সন্ত্রাসবাদ চালিয়ে যাচ্ছে – শামীম ওসমান

রাকিব হাসান সাগর, নারায়ণগঞ্জ

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত ‘নৌকা’ প্রতীকের প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেছেন, নির্বাচন কমিশনের কাছে অনুরোধ জানাবো। নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগের শক্তিশালী ঘাটি। এই দৃশ্য দেখার পর আমাদের পায়ের রক্ত যখন মাথায় আসে, যে মায়ের বুকে বাচ্চার লাশ। নারায়ণগঞ্জে যদি নির্বাচন কমিশনের অনুমতি ছাড়া কোন প্রোগ্রাম হয়, মানুষের গাড়িতে যদি অগ্নিসংযোগ করা হয়, ককটেল কিংবা, বোম মারা হয়, এই ধরনের ঘটনা ঘটলে নারায়ণগঞ্জকে কন্ট্রোল করা যাবে না। এটা আমি পরিস্কারভাবে আপনাদের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন এবং নারায়ণগঞ্জে যারা দায়িত্বে আছেন তাদের জানিয়ে দিচ্ছি। আমরা কারো উপর ভরসা করে রাজনীতি করি না। আমরা রাজনীতি করি উপরে আল্লাহ রাব্বুল আলামিন, নেত্রী হচ্ছেন আমাদের শেখ হাসিনা আর জনগণ হচ্ছে ক্ষমতার উৎস। কারো কাছে মাথা নত করবো না।

বুধবার (২০ ডিসেম্বর) বিকালে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের ৬নম্বর ওয়ার্ডে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, মঙ্গলবার হরতালের সমর্থনে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন এলাকা বিশেষ করে ফতুল্লায় ১৩ থেকে ১৪টা পয়েন্টে মিছিল বেরিয়েছে। মশাল মিছিল হয়েছে। হাইওয়েতে অগ্নিসংযোগ করেছে। আমরা দেখেছি। আমাদের নেতাকর্মীরা জিঞ্জেস করেছে আমরা কি করবো? আমরা বলেছি ধৈয্য ধরতে হবে। এটা নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব নিয়েছেন। আইনশৃংখলা বাহিনী আছেন। তাদের দায়িত্ব। আর কেন ওরা করতে পারলো। এই প্রশ্নের উত্তর দেয়ার ক্ষমতা আমার নাই। এই প্রশ্নের উত্তর যারা রিটার্নিং অফিসার আছেন, নারায়ণগঞ্জের আইনশৃংখলা বাহিনীর দায়িত্বে আছেন তারা দিতে পারবেন। আমি বিশ্বাস করি মানুষ যাতে শান্তিতে নিরাপদে স্বতর্স্ফুতভাবে ভোট দিতে পারে এই ব্যবস্থা করা তাদের দায়িত্ব।

শামীম ওসমান বলেন, রাজনীতি হলো আমার কাছে এবাদত। কিন্তু ওরা ট্রেনে আগুন জ্বালিয়ে, বাসে আগুন জ্বালিয়ে দেশজুড়ে সন্ত্রাসবাদ চালিয়ে যাচ্ছে। আমি নির্বাচন কমিশন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে অনুরোধ করবো, আপনারা ব্যবস্থা নেন। জনগণ হলো রাষ্ট্রের মালিক। জনগণ যদি আওয়ামী লীগকে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে বলে তবে এর পরিণতি ভয়াবহ হবে।

তিনি আরও বলেন, আমাকে মারার চেষ্টা চলছেই। যারা চেষ্টা চালাচ্ছেন তাদের উদ্দেশ্যে আমি বলবো, আমাকে মারতে হলে শুধু আমাকেই মাইরেন। আমার সহযোগী যারা আছেন তাদের কিছু কইরেন না। নেত্রীর ওপর হামলার চেষ্টা করলে আপনারা কিছুই করতে পারবেন না। কারণ তার ওপর আল্লাহর খাস রহমত রয়েছে। যত চেষ্টাই করেন না কেনো তাকে দমিয়ে রাখতে পারবেন না।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক হাজী ইয়াছিন মিয়া, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সাজনু, নাসিক ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবলীগের সভাপতি মতিউর রহমান মতিসহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগি সংগঠনের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৫:২৭:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ ডিসেম্বর ২০২৩
৭৪ বার পড়া হয়েছে

ট্রেনে, বাসে আগুন জ্বালিয়ে দেশজুড়ে ওরা সন্ত্রাসবাদ চালিয়ে যাচ্ছে – শামীম ওসমান

আপডেট সময় ০৫:২৭:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ ডিসেম্বর ২০২৩

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত ‘নৌকা’ প্রতীকের প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেছেন, নির্বাচন কমিশনের কাছে অনুরোধ জানাবো। নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগের শক্তিশালী ঘাটি। এই দৃশ্য দেখার পর আমাদের পায়ের রক্ত যখন মাথায় আসে, যে মায়ের বুকে বাচ্চার লাশ। নারায়ণগঞ্জে যদি নির্বাচন কমিশনের অনুমতি ছাড়া কোন প্রোগ্রাম হয়, মানুষের গাড়িতে যদি অগ্নিসংযোগ করা হয়, ককটেল কিংবা, বোম মারা হয়, এই ধরনের ঘটনা ঘটলে নারায়ণগঞ্জকে কন্ট্রোল করা যাবে না। এটা আমি পরিস্কারভাবে আপনাদের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন এবং নারায়ণগঞ্জে যারা দায়িত্বে আছেন তাদের জানিয়ে দিচ্ছি। আমরা কারো উপর ভরসা করে রাজনীতি করি না। আমরা রাজনীতি করি উপরে আল্লাহ রাব্বুল আলামিন, নেত্রী হচ্ছেন আমাদের শেখ হাসিনা আর জনগণ হচ্ছে ক্ষমতার উৎস। কারো কাছে মাথা নত করবো না।

বুধবার (২০ ডিসেম্বর) বিকালে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের ৬নম্বর ওয়ার্ডে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, মঙ্গলবার হরতালের সমর্থনে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন এলাকা বিশেষ করে ফতুল্লায় ১৩ থেকে ১৪টা পয়েন্টে মিছিল বেরিয়েছে। মশাল মিছিল হয়েছে। হাইওয়েতে অগ্নিসংযোগ করেছে। আমরা দেখেছি। আমাদের নেতাকর্মীরা জিঞ্জেস করেছে আমরা কি করবো? আমরা বলেছি ধৈয্য ধরতে হবে। এটা নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব নিয়েছেন। আইনশৃংখলা বাহিনী আছেন। তাদের দায়িত্ব। আর কেন ওরা করতে পারলো। এই প্রশ্নের উত্তর দেয়ার ক্ষমতা আমার নাই। এই প্রশ্নের উত্তর যারা রিটার্নিং অফিসার আছেন, নারায়ণগঞ্জের আইনশৃংখলা বাহিনীর দায়িত্বে আছেন তারা দিতে পারবেন। আমি বিশ্বাস করি মানুষ যাতে শান্তিতে নিরাপদে স্বতর্স্ফুতভাবে ভোট দিতে পারে এই ব্যবস্থা করা তাদের দায়িত্ব।

শামীম ওসমান বলেন, রাজনীতি হলো আমার কাছে এবাদত। কিন্তু ওরা ট্রেনে আগুন জ্বালিয়ে, বাসে আগুন জ্বালিয়ে দেশজুড়ে সন্ত্রাসবাদ চালিয়ে যাচ্ছে। আমি নির্বাচন কমিশন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে অনুরোধ করবো, আপনারা ব্যবস্থা নেন। জনগণ হলো রাষ্ট্রের মালিক। জনগণ যদি আওয়ামী লীগকে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে বলে তবে এর পরিণতি ভয়াবহ হবে।

তিনি আরও বলেন, আমাকে মারার চেষ্টা চলছেই। যারা চেষ্টা চালাচ্ছেন তাদের উদ্দেশ্যে আমি বলবো, আমাকে মারতে হলে শুধু আমাকেই মাইরেন। আমার সহযোগী যারা আছেন তাদের কিছু কইরেন না। নেত্রীর ওপর হামলার চেষ্টা করলে আপনারা কিছুই করতে পারবেন না। কারণ তার ওপর আল্লাহর খাস রহমত রয়েছে। যত চেষ্টাই করেন না কেনো তাকে দমিয়ে রাখতে পারবেন না।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক হাজী ইয়াছিন মিয়া, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সাজনু, নাসিক ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবলীগের সভাপতি মতিউর রহমান মতিসহ আওয়ামীলীগ ও সহযোগি সংগঠনের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।