ঢাকা ০৭:২৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নওগাঁয় দুই এমপি প্রার্থীকে শোকজ

নিজস্ব সংবাদ

নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অপরাধে নওগাঁ-২ আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শহিদুজ্জামান সরকার ও একই আসনের জাতীয় পার্টির প্রার্থী তোফাজ্জল হোসেনকে কারণ দর্শানোর (শোকজ) নোটিশ দিয়েছে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি। মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) বিকেলে এ দুই প্রার্থীকে আলাদা চিঠির মাধ্যমে শোকজ করা হয়।

নওগাঁ-২ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান, সিনিয়র সহকারী জজ মো. আহসান হাবিব বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গত ৩০ নভেম্বর আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান এমপি শহিদুজ্জামান সরকারের উপস্থিতিতেই দলীয় নেতাকর্মীরা মোটরসাইকেল শোডাউন করেন। আর ৩ ডিসেম্বর থেকে কয়েকদিন জাতীয় পার্টির প্রার্থী অ্যাডভোকেট তোফাজ্জাল হোসেনের লোকজন রঙিন ব্যানার ফেস্টুন লাগিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়েছেন। যা খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে উঠে এসেছে। তাদের এসব কর্মকাণ্ড নির্বাচনী আচরণবিধির ২০০৮ এর ৬ (ঘ) ও ১২ নম্বর বিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

তাই আগামী ১০ ডিসেম্বর দুপুরে অস্থায়ী সিনিয়র সহকারী জজ আদালতের কার্যালয়ে হাজির হয়ে তাদের লিখিত ব্যাখ্যা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে চিঠিতে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০২:০২:২০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২৩
৩৮ বার পড়া হয়েছে

নওগাঁয় দুই এমপি প্রার্থীকে শোকজ

আপডেট সময় ০২:০২:২০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২৩

নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অপরাধে নওগাঁ-২ আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শহিদুজ্জামান সরকার ও একই আসনের জাতীয় পার্টির প্রার্থী তোফাজ্জল হোসেনকে কারণ দর্শানোর (শোকজ) নোটিশ দিয়েছে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি। মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) বিকেলে এ দুই প্রার্থীকে আলাদা চিঠির মাধ্যমে শোকজ করা হয়।

নওগাঁ-২ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান, সিনিয়র সহকারী জজ মো. আহসান হাবিব বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গত ৩০ নভেম্বর আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান এমপি শহিদুজ্জামান সরকারের উপস্থিতিতেই দলীয় নেতাকর্মীরা মোটরসাইকেল শোডাউন করেন। আর ৩ ডিসেম্বর থেকে কয়েকদিন জাতীয় পার্টির প্রার্থী অ্যাডভোকেট তোফাজ্জাল হোসেনের লোকজন রঙিন ব্যানার ফেস্টুন লাগিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়েছেন। যা খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে উঠে এসেছে। তাদের এসব কর্মকাণ্ড নির্বাচনী আচরণবিধির ২০০৮ এর ৬ (ঘ) ও ১২ নম্বর বিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

তাই আগামী ১০ ডিসেম্বর দুপুরে অস্থায়ী সিনিয়র সহকারী জজ আদালতের কার্যালয়ে হাজির হয়ে তাদের লিখিত ব্যাখ্যা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে চিঠিতে।