ঢাকা ০১:৪৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের আয়োজনে গণ-ইফতার

মোঃ সাহাদাৎ হোসেন, নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়

বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ইফতার পার্টির ওপর নিষেধাজ্ঞার প্রতিবাদ ও সম্প্রীতির আহ্বানে এবার গণ-ইফতারের আয়োজন করেছে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। প্রায় পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থীদের এই আয়োজনে স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীরাও।

সোমবার (২৫ মার্চ) রমজানের ১৪তম দিনে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ রাসেল কেন্দ্রীয় মাঠে গণ-ইফতার কর্মসূচি পালন করা হয়। ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের কাছে রমজান সংযম ও ত্যাগের মাস। এই মাসে সারা দিন রোজা পালনের পর উৎসবমুখর পরিবেশে আয়োজন হয় ইফতারের। এর দুইদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্ঠ গ্রুপে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা গণ ইফতারের আহ্বান জানায়। এই ধারাবাহিকতায় ২৫ মার্চ ইফতার উৎসবে মুখরিত হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মাঠ প্রাঙ্গন। এসময় ইসলামিক আলোচনা ও সমবেত দোয়ায় অংশ নেয় শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানায়, ইসলাম আর রমজানের যে শিক্ষা, তা সর্বস্তরে ছড়িয়ে দেয়ার জন্যেই এই উদ্যোগ। এছাড়া মুসলিম গণজাগরণের একটি দৃষ্টান্ত হয়েও থাকবে আয়োজনটি।

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী নিলয় মাহমুদ রুবেল অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন, ক্যাম্পাসে এমন আয়োজন আর দেখিনি। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, সিনিয়র, জুনিয়র ভাইদের দেয়া টাকা দিয়ে এই কাজে নেমে ছিলাম গতকাল রাত থেকে। আইন বিভাগের ভাইগুলোর পরিশ্রম সত্যি বলার মতো না। ওরা রাত জেগে পর্যন্ত কাজ করেছে। সবাইকে একসাথে এভাবে দেখতে পারাটা সত্যিই আনন্দের। আযানের আগে আগে প্রক্টর সঞ্জয় স্যার আমার হাতে উনার প্লেট টা তুলে দিয়ে বললেন, রুবেল কেউ বাকি থাকলে তার হাতে ইফতার দাও! ছোট ছোট কথা গুলোই তো শান্তি।

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর সঞ্জয় কুমার মুখার্জি বলেন, এধরনের উদ‍্যোগ বিশ্ববিদ্যালয়ে সবার মধ্যে ভ্রাতৃত্ব ও সম্প্রিতির বন্ধন বৃদ্ধি করবে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ১২:১৪:৩৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০২৪
৬১ বার পড়া হয়েছে

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের আয়োজনে গণ-ইফতার

আপডেট সময় ১২:১৪:৩৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০২৪

বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ইফতার পার্টির ওপর নিষেধাজ্ঞার প্রতিবাদ ও সম্প্রীতির আহ্বানে এবার গণ-ইফতারের আয়োজন করেছে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। প্রায় পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থীদের এই আয়োজনে স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীরাও।

সোমবার (২৫ মার্চ) রমজানের ১৪তম দিনে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ রাসেল কেন্দ্রীয় মাঠে গণ-ইফতার কর্মসূচি পালন করা হয়। ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের কাছে রমজান সংযম ও ত্যাগের মাস। এই মাসে সারা দিন রোজা পালনের পর উৎসবমুখর পরিবেশে আয়োজন হয় ইফতারের। এর দুইদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্ঠ গ্রুপে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা গণ ইফতারের আহ্বান জানায়। এই ধারাবাহিকতায় ২৫ মার্চ ইফতার উৎসবে মুখরিত হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মাঠ প্রাঙ্গন। এসময় ইসলামিক আলোচনা ও সমবেত দোয়ায় অংশ নেয় শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জানায়, ইসলাম আর রমজানের যে শিক্ষা, তা সর্বস্তরে ছড়িয়ে দেয়ার জন্যেই এই উদ্যোগ। এছাড়া মুসলিম গণজাগরণের একটি দৃষ্টান্ত হয়েও থাকবে আয়োজনটি।

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী নিলয় মাহমুদ রুবেল অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন, ক্যাম্পাসে এমন আয়োজন আর দেখিনি। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, সিনিয়র, জুনিয়র ভাইদের দেয়া টাকা দিয়ে এই কাজে নেমে ছিলাম গতকাল রাত থেকে। আইন বিভাগের ভাইগুলোর পরিশ্রম সত্যি বলার মতো না। ওরা রাত জেগে পর্যন্ত কাজ করেছে। সবাইকে একসাথে এভাবে দেখতে পারাটা সত্যিই আনন্দের। আযানের আগে আগে প্রক্টর সঞ্জয় স্যার আমার হাতে উনার প্লেট টা তুলে দিয়ে বললেন, রুবেল কেউ বাকি থাকলে তার হাতে ইফতার দাও! ছোট ছোট কথা গুলোই তো শান্তি।

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর সঞ্জয় কুমার মুখার্জি বলেন, এধরনের উদ‍্যোগ বিশ্ববিদ্যালয়ে সবার মধ্যে ভ্রাতৃত্ব ও সম্প্রিতির বন্ধন বৃদ্ধি করবে।