ঢাকা ০৮:৩৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নারায়ণগঞ্জে জঙ্গি সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়ি থেকে ৩টি বোমা উদ্ধার

হাসান আহমেদ প্রান্ত, নারায়ণগঞ্জ

 

নারায়ণগঞ্জ রূপগঞ্জে জঙ্গি সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়ি থেকে ৩টি বোমা উদ্ধার ও নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে।

 

মঙ্গলবার (২ জুলাই) বিকেলে ৩টি বোমা উদ্ধারের তথ্য জানা যায়। এর মধ্যে একটি বোমা বাড়ির অভ্যন্তরে ও বাকি দুটি পাশের মাঠে মাটি খুঁড়ে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিষ্ক্রিয় করা হয়।

এর আগে সকাল ১০টা থেকে উপজেলার বরপা বাগানবাড়ি এলাকার জাকির হোসেনের বাড়িটি ঘিরে রাখে অ্যান্টি টেররিজম ইউনিটের (এটিইউ) সদস্যরা। দুপুর ২টায় ভবনের ভেতরে তৃতীয় তলার একটি বাসায় অভিযান শুরু করা হয়।

এটিইউ পুলিশ সুপার সানোয়ার ইসলাম জানান, গত মাসের ৮ ও ৯ তারিখে আমরা নেত্রকোনায় অভিযান পরিচালনা করি। সেখান থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে দেশব্যাপী আমাদের অনেকগুলো অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানের ভিত্তিতে গতকাল আমরা কক্সবাজার থেকে একজনকে গ্রেপ্তার করি। তার কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে গতকাল থেকে আমাদের সদস্যরা রূপগঞ্জে কাজ করছিল। এখানে একাধিক সদস্য থাকতে পারে।

তিনি আরো জানান, আজ সকাল ১০টায় আমরা এই বাড়িটিকে চিহ্নিত করি। প্রাপ্ত গোয়েন্দা তথ্য মোতাবেক ওদের কাছে কিছু ম্যাটারিয়েলস থাকার কথা। যাকে ধরতে এই অভিযান সে বোম সম্পর্কে এক্সপার্ট বলে আমরা জেনেছি। তাই আমরা সতর্ক ভাবে অভিযানটি পরিচালনা করছি।

একই ভবনের নিচ তলায় ভাড়া থাকেন সুন্নত মিয়া। তিনি জানান, দুই শিশুসহ স্বামী-স্ত্রী বেশ কয়েকমাস ধরে ৩য় তলায় থাকছিল। কয়দিন ধরে তাদের দেখতে পাচ্ছেন না তারা। সেই স্বামী স্ত্রী জানিয়েছিল তারা সিদ্ধিরগঞ্জের টিটাগাংরোডে গার্মেন্টসে চাকরি করেন।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৬:৫৬:২৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুলাই ২০২৪
৩৩ বার পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জে জঙ্গি সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়ি থেকে ৩টি বোমা উদ্ধার

আপডেট সময় ০৬:৫৬:২৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ জুলাই ২০২৪

 

নারায়ণগঞ্জ রূপগঞ্জে জঙ্গি সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়ি থেকে ৩টি বোমা উদ্ধার ও নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে।

 

মঙ্গলবার (২ জুলাই) বিকেলে ৩টি বোমা উদ্ধারের তথ্য জানা যায়। এর মধ্যে একটি বোমা বাড়ির অভ্যন্তরে ও বাকি দুটি পাশের মাঠে মাটি খুঁড়ে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিষ্ক্রিয় করা হয়।

এর আগে সকাল ১০টা থেকে উপজেলার বরপা বাগানবাড়ি এলাকার জাকির হোসেনের বাড়িটি ঘিরে রাখে অ্যান্টি টেররিজম ইউনিটের (এটিইউ) সদস্যরা। দুপুর ২টায় ভবনের ভেতরে তৃতীয় তলার একটি বাসায় অভিযান শুরু করা হয়।

এটিইউ পুলিশ সুপার সানোয়ার ইসলাম জানান, গত মাসের ৮ ও ৯ তারিখে আমরা নেত্রকোনায় অভিযান পরিচালনা করি। সেখান থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে দেশব্যাপী আমাদের অনেকগুলো অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানের ভিত্তিতে গতকাল আমরা কক্সবাজার থেকে একজনকে গ্রেপ্তার করি। তার কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে গতকাল থেকে আমাদের সদস্যরা রূপগঞ্জে কাজ করছিল। এখানে একাধিক সদস্য থাকতে পারে।

তিনি আরো জানান, আজ সকাল ১০টায় আমরা এই বাড়িটিকে চিহ্নিত করি। প্রাপ্ত গোয়েন্দা তথ্য মোতাবেক ওদের কাছে কিছু ম্যাটারিয়েলস থাকার কথা। যাকে ধরতে এই অভিযান সে বোম সম্পর্কে এক্সপার্ট বলে আমরা জেনেছি। তাই আমরা সতর্ক ভাবে অভিযানটি পরিচালনা করছি।

একই ভবনের নিচ তলায় ভাড়া থাকেন সুন্নত মিয়া। তিনি জানান, দুই শিশুসহ স্বামী-স্ত্রী বেশ কয়েকমাস ধরে ৩য় তলায় থাকছিল। কয়দিন ধরে তাদের দেখতে পাচ্ছেন না তারা। সেই স্বামী স্ত্রী জানিয়েছিল তারা সিদ্ধিরগঞ্জের টিটাগাংরোডে গার্মেন্টসে চাকরি করেন।