ঢাকা ০১:০৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নির্বাচনী আচরণ বিধি ভঙ্গে মনোনয়ন জমা

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

নির্বাচনী আচরণ বিধি ভঙ্গ করে জাতীয় পতাকাবাহী গাড়িতে ও পুলিশ প্রটোকল নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন চট্টগ্রাম-১২ আসনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ও জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামানের কার্যালয়ে মনোনয়ন জমা দিতে আসেন তিনি।

এ সময় পুলিশ প্রটোকল নিয়ে আসতে দেখা যায় তাকে।

প্রটোকল নিয়ে মনোনয়ন জমা দিতে আসা নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে উত্তরে সামশুল হক চৌধুরী বলেন,  প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেছেন, আমি শুধু আমার নির্বাচনী এলাকায় প্রটোকল পাব না, পতাকা পাব না।

সুতরাং পতাকা ও প্রটোকল বন্ধ হবে আমার এলাকায় ঢুকলে।

তবে জাতীয় সংসদ নির্বাচন আচরণ বিধিমালার ১৪ (১) ও ১৪ (২) ধারা অনুযায়ী, সরকারি সুবিধাভোগী অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি তাহার সঙ্গে তাহার সরকারি কর্মসূচির সঙ্গে নির্বাচনী কর্মসূচি বা কর্মকাণ্ড যোগ করিতে পারিবেন না।

আর সরকারি সুবিধাভোগী অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি তাহার নিজের বা অন্যের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় সরকারি যানবাহন, সরকারি প্রচারযন্ত্রের ব্যবহার বা অন্যবিধ সরকারি সুবিধাভোগ করিতে পারিবেন না।

সরকারি সুবিধাভোগী অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির মধ্যে আছেন প্রধানমন্ত্রী, জাতীয় সংসদের স্পিকার, সরকারের মন্ত্রী, চিফ হুইপ, ডেপুটি স্পিকার, বিরোধীদলীয় নেতা, সংসদ উপনেতা, বিরোধীদলীয় উপনেতা, প্রতিমন্ত্রী, হুইপ, উপমন্ত্রী বা তাঁদের সমপদমর্যাদার কোনো ব্যক্তি, সংসদ সদস্য এবং সিটি করপোরেশনের মেয়র৷

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৬:৫২:২৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর ২০২৩
৪১ বার পড়া হয়েছে

নির্বাচনী আচরণ বিধি ভঙ্গে মনোনয়ন জমা

আপডেট সময় ০৬:৫২:২৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর ২০২৩

নির্বাচনী আচরণ বিধি ভঙ্গ করে জাতীয় পতাকাবাহী গাড়িতে ও পুলিশ প্রটোকল নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন চট্টগ্রাম-১২ আসনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ও জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামানের কার্যালয়ে মনোনয়ন জমা দিতে আসেন তিনি।

এ সময় পুলিশ প্রটোকল নিয়ে আসতে দেখা যায় তাকে।

প্রটোকল নিয়ে মনোনয়ন জমা দিতে আসা নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে উত্তরে সামশুল হক চৌধুরী বলেন,  প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেছেন, আমি শুধু আমার নির্বাচনী এলাকায় প্রটোকল পাব না, পতাকা পাব না।

সুতরাং পতাকা ও প্রটোকল বন্ধ হবে আমার এলাকায় ঢুকলে।

তবে জাতীয় সংসদ নির্বাচন আচরণ বিধিমালার ১৪ (১) ও ১৪ (২) ধারা অনুযায়ী, সরকারি সুবিধাভোগী অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি তাহার সঙ্গে তাহার সরকারি কর্মসূচির সঙ্গে নির্বাচনী কর্মসূচি বা কর্মকাণ্ড যোগ করিতে পারিবেন না।

আর সরকারি সুবিধাভোগী অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি তাহার নিজের বা অন্যের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় সরকারি যানবাহন, সরকারি প্রচারযন্ত্রের ব্যবহার বা অন্যবিধ সরকারি সুবিধাভোগ করিতে পারিবেন না।

সরকারি সুবিধাভোগী অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির মধ্যে আছেন প্রধানমন্ত্রী, জাতীয় সংসদের স্পিকার, সরকারের মন্ত্রী, চিফ হুইপ, ডেপুটি স্পিকার, বিরোধীদলীয় নেতা, সংসদ উপনেতা, বিরোধীদলীয় উপনেতা, প্রতিমন্ত্রী, হুইপ, উপমন্ত্রী বা তাঁদের সমপদমর্যাদার কোনো ব্যক্তি, সংসদ সদস্য এবং সিটি করপোরেশনের মেয়র৷