ঢাকা ০৭:৫৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পথচারীদের দূর্ঘটনা থেকে এড়াতে লাল পতাকায় সতর্ক সংকেত মালয়েশিয়া প্রবাসীর

মোঃ মামুন ডিমলা (নীলফামারী

মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য তা করে দেখালেন, নীলফামারী ডিমলা উপজেলার ৫ নং গয়াবাড়ি ইউনিয়ন ৯ নং ওয়ার্ডের মাহাতাব উদ্দিন এর ছেলে মালয়েশিয়া প্রবাসি মফেল উদ্দিন।

গত জানুয়ারিতে বাসায় ফিরে এলাকায় সাধারণ জনগণ, যানবাহন সহ , পথচারীদের দূর্ভোগ দেখলে মফেল উদ্দিন ছুটে গিয়ে সমস্যা সমাধানে ব্যস্ত হয়ে পরে। তারই ধারাবাহিক শুক্রবার সকালে দাওয়াতের উদ্দেশ্যে ডোমার যাওয়ার পথে নীলফামারী ডিমলা জলঢাকা উপজেলার মধ্যবর্তী বুড়ী তিস্তা নদীর ব্রীজের উত্তর ছোট্র পুলের দক্ষিণে ডিমলা জলঢাকা পাকা রোডের এক প্রান্তে বৃষ্টিতে ভেঙ্গে যায় । এটি তার দৃষ্টিতে আসলে তাৎক্ষণিক সে তার আত্মীয় বাড়ী যাওয়া বিলম্ব করে দোকান থেকে লাল নিশান এনে বিপদজনক স্থানে লাগিয়ে দেন।

কেন আপনাকে এটা করতে হবে জানতে চাইলে, মফেল বলেন, আমি চাইনা মানুষ বিপদে পরে তার ও তার সংসারের অপরিসীম ক্ষতি হউক। পথচারীরা সুস্থ শরীরে গন্তব্য স্থানে পৌঁছে যাক এবং আমরা সবাই যেন একে অপরের জন্য  সচেতনতা মূলক কাজে এগিয়ে আসি।

রাস্তার পথচারীরা বলেন এলাকায় অনেক সচেতন মহল থাকলেও কেউ একাজটি করতে পারেনি।ভালো কাজের জন্য অশেষ ধন্যবাদ ও সাধুবাদ জানাই।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৩:০৮:২১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪
৯৭ বার পড়া হয়েছে

পথচারীদের দূর্ঘটনা থেকে এড়াতে লাল পতাকায় সতর্ক সংকেত মালয়েশিয়া প্রবাসীর

আপডেট সময় ০৩:০৮:২১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪

মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য তা করে দেখালেন, নীলফামারী ডিমলা উপজেলার ৫ নং গয়াবাড়ি ইউনিয়ন ৯ নং ওয়ার্ডের মাহাতাব উদ্দিন এর ছেলে মালয়েশিয়া প্রবাসি মফেল উদ্দিন।

গত জানুয়ারিতে বাসায় ফিরে এলাকায় সাধারণ জনগণ, যানবাহন সহ , পথচারীদের দূর্ভোগ দেখলে মফেল উদ্দিন ছুটে গিয়ে সমস্যা সমাধানে ব্যস্ত হয়ে পরে। তারই ধারাবাহিক শুক্রবার সকালে দাওয়াতের উদ্দেশ্যে ডোমার যাওয়ার পথে নীলফামারী ডিমলা জলঢাকা উপজেলার মধ্যবর্তী বুড়ী তিস্তা নদীর ব্রীজের উত্তর ছোট্র পুলের দক্ষিণে ডিমলা জলঢাকা পাকা রোডের এক প্রান্তে বৃষ্টিতে ভেঙ্গে যায় । এটি তার দৃষ্টিতে আসলে তাৎক্ষণিক সে তার আত্মীয় বাড়ী যাওয়া বিলম্ব করে দোকান থেকে লাল নিশান এনে বিপদজনক স্থানে লাগিয়ে দেন।

কেন আপনাকে এটা করতে হবে জানতে চাইলে, মফেল বলেন, আমি চাইনা মানুষ বিপদে পরে তার ও তার সংসারের অপরিসীম ক্ষতি হউক। পথচারীরা সুস্থ শরীরে গন্তব্য স্থানে পৌঁছে যাক এবং আমরা সবাই যেন একে অপরের জন্য  সচেতনতা মূলক কাজে এগিয়ে আসি।

রাস্তার পথচারীরা বলেন এলাকায় অনেক সচেতন মহল থাকলেও কেউ একাজটি করতে পারেনি।ভালো কাজের জন্য অশেষ ধন্যবাদ ও সাধুবাদ জানাই।