ঢাকা ০৮:০২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রোটিয়াদের বিপক্ষে হেরে আউটফিল্ড নিয়ে প্রশ্ন ভারতের

নিজস্ব সংবাদ

বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয়েছিল তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটি। দ্বিতীয়টিতে অবশ্য সেটি হয়নি। বৃষ্টি হলেও ম্যাচ শেষ করা গেছে। যেখানে ভারতের বিপক্ষে ৫ উইকেটের জয়ে সিরিজে লিড নিয়েছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে এমন হার অবশ্য মানতে পারছে না ভারত। ম্যাচ হারের কারণ হিসেবে ভেজা আউটফিল্ডের দিকে আঙুল তুলেছে দলটির ক্রিকেটার তিলক ভার্মা।

সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে আগে ব্যাট করে ১৯.৩ ওভারে ৭ উইকেট খরচায় দক্ষিণ আফ্রিকাকে ১৮১ রানের টার্গেট দেয় ভারত। দলের হয়ে ৩৬ বলে ৫৬ রান আসে অধিনায়ক সূর্যকুমারের ব্যাট থেকে। ৩৯ বলে অপরাজিত ৬৮ রানের ইনিংস খেলেন রিংকু সিং।

বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয়েছিল তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটি। দ্বিতীয়টিতে অবশ্য সেটি হয়নি। বৃষ্টি হলেও ম্যাচ শেষ করা গেছে। যেখানে ভারতের বিপক্ষে ৫ উইকেটের জয়ে সিরিজে লিড নিয়েছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে এমন হার অবশ্য মানতে পারছে না ভারত। ম্যাচ হারের কারণ হিসেবে ভেজা আউটফিল্ডের দিকে আঙুল তুলেছে দলটির ক্রিকেটার তিলক ভার্মা।

সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে আগে ব্যাট করে ১৯.৩ ওভারে ৭ উইকেট খরচায় দক্ষিণ আফ্রিকাকে ১৮১ রানের টার্গেট দেয় ভারত। দলের হয়ে ৩৬ বলে ৫৬ রান আসে অধিনায়ক সূর্যকুমারের ব্যাট থেকে। ৩৯ বলে অপরাজিত ৬৮ রানের ইনিংস খেলেন রিংকু সিং।

জবাব দিতে নেমে ১৩.৫ ওভারে ৫ উইকেট খরচায় ১৫৪ রান করে দক্ষিণ আফ্রিকা। এরপর বৃষ্টি শুরু হলে বৃষ্টি আইনে ৭ বল ও ৫ উইকেটের জয় পায় প্রোটিয়ারা। স্বাগতিকদের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৯ রান করেন রেজা হেনরিক্স।

তবে এই হার মানতে পারছে না তিলক ভার্মা। বৃষ্টি ও ভেজা আউটফিল্ডের দিকে আঙুল তুলেছেন তিনি। তিলক বলেন, ‘ভেজা আউটফিল্ডের কারণে, বল খুব একটা গ্রিপ করছিল না। কিন্তু এরপরও আমরা ভালো ব্যাটিং করেছি। ওপেনাররা আজ খুব একটা ভালো করতে না পারলেও পরে সূর্য, আমি এবং রিংকু ব্যাটিংয়ে ভালো ছন্দ পেয়েছিলাম। আমরা ভালো রানও করেছি। কিন্তু বৃষ্টি ও ভেজা আউটফিল্ডের কারণে তাদের আটকানো যায়নি।’

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ১১:১১:০৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০২৩
২৬৪ বার পড়া হয়েছে

প্রোটিয়াদের বিপক্ষে হেরে আউটফিল্ড নিয়ে প্রশ্ন ভারতের

আপডেট সময় ১১:১১:০৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০২৩

বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয়েছিল তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটি। দ্বিতীয়টিতে অবশ্য সেটি হয়নি। বৃষ্টি হলেও ম্যাচ শেষ করা গেছে। যেখানে ভারতের বিপক্ষে ৫ উইকেটের জয়ে সিরিজে লিড নিয়েছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে এমন হার অবশ্য মানতে পারছে না ভারত। ম্যাচ হারের কারণ হিসেবে ভেজা আউটফিল্ডের দিকে আঙুল তুলেছে দলটির ক্রিকেটার তিলক ভার্মা।

সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে আগে ব্যাট করে ১৯.৩ ওভারে ৭ উইকেট খরচায় দক্ষিণ আফ্রিকাকে ১৮১ রানের টার্গেট দেয় ভারত। দলের হয়ে ৩৬ বলে ৫৬ রান আসে অধিনায়ক সূর্যকুমারের ব্যাট থেকে। ৩৯ বলে অপরাজিত ৬৮ রানের ইনিংস খেলেন রিংকু সিং।

বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয়েছিল তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটি। দ্বিতীয়টিতে অবশ্য সেটি হয়নি। বৃষ্টি হলেও ম্যাচ শেষ করা গেছে। যেখানে ভারতের বিপক্ষে ৫ উইকেটের জয়ে সিরিজে লিড নিয়েছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে এমন হার অবশ্য মানতে পারছে না ভারত। ম্যাচ হারের কারণ হিসেবে ভেজা আউটফিল্ডের দিকে আঙুল তুলেছে দলটির ক্রিকেটার তিলক ভার্মা।

সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে আগে ব্যাট করে ১৯.৩ ওভারে ৭ উইকেট খরচায় দক্ষিণ আফ্রিকাকে ১৮১ রানের টার্গেট দেয় ভারত। দলের হয়ে ৩৬ বলে ৫৬ রান আসে অধিনায়ক সূর্যকুমারের ব্যাট থেকে। ৩৯ বলে অপরাজিত ৬৮ রানের ইনিংস খেলেন রিংকু সিং।

জবাব দিতে নেমে ১৩.৫ ওভারে ৫ উইকেট খরচায় ১৫৪ রান করে দক্ষিণ আফ্রিকা। এরপর বৃষ্টি শুরু হলে বৃষ্টি আইনে ৭ বল ও ৫ উইকেটের জয় পায় প্রোটিয়ারা। স্বাগতিকদের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৯ রান করেন রেজা হেনরিক্স।

তবে এই হার মানতে পারছে না তিলক ভার্মা। বৃষ্টি ও ভেজা আউটফিল্ডের দিকে আঙুল তুলেছেন তিনি। তিলক বলেন, ‘ভেজা আউটফিল্ডের কারণে, বল খুব একটা গ্রিপ করছিল না। কিন্তু এরপরও আমরা ভালো ব্যাটিং করেছি। ওপেনাররা আজ খুব একটা ভালো করতে না পারলেও পরে সূর্য, আমি এবং রিংকু ব্যাটিংয়ে ভালো ছন্দ পেয়েছিলাম। আমরা ভালো রানও করেছি। কিন্তু বৃষ্টি ও ভেজা আউটফিল্ডের কারণে তাদের আটকানো যায়নি।’