ঢাকা ১২:৩২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে রাবিতে রিক্সা ভাড়ার নৈরাজ্য

মাইনুল ইসলাম রাজু রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

 

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে রিক্সার নৈরাজ্য। ভর্তি পরিক্ষার্থীদের অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে প্রশাসনের নির্ধারিত ভাড়ার দুই থেকে তিন গুন পর্যন্ত ভাড়া হাকাচ্ছেন রিক্সাওয়ালারা । তাদের এই দৌরাত্ম্যে ভোগান্তিতে পড়ছেন দূর-দূরান্ত থেকে আসা ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা।

 

সরেজমিনে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজলা গেট থেকে কৃষি অনুষদের ভাড়া নিচ্ছেন ৮০ টাকা। কিন্তু একই পথের ভাড়া বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নির্ধারিত ভাড়া ৩০ টাকা। এছাড়াও অভিযোগ রয়েছে এক জায়গার কথা বলে অন্য জায়গায় নামিয়ে দেয়ার। এ বিষয়ে প্রতিবাদ করলে রিক্সাওয়ালারা বলেন অন্য জায়গায় দেখেন। প্রশাসনের কোন নির্দেশনা না মেনে উল্টো ভোগান্তি বাড়াতেই ব্যস্ত রিক্সাওয়ালারা।

 

এই বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ঢাকা থেকে আগত অভিভাবক হারুনুর রশিদ। তিনি বলেন, স্টেশন থেকে উঠেছি চারুকলা অনুষদে যাব বলে। এখন আমাকে প্যারিস রোডে নামিয়ে দিয়েছেন। আমি অসুস্থ একজন মানুষ, রিক্সাওয়ালার এমন দৌরাত্ম্যে দূূর থেকে আসা আমরা অভিভাবক ও ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা অসহায় হয়ে পড়েছি।

 

সাদাব হোসাইন নামে ভর্তিচ্ছু এক শিক্ষার্থী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এক জায়গায় যাব বলে উঠেছি। নামিয়ে দিল অন্য জায়গায়। আবার ভাড়াও প্রায় দ্বিগুণ নিয়েছে। এখন আমি পথ চিনতেছি না আবার পরিক্ষারও সময় হয়ে গেছে।

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক মো. মাহফুজুর রহমান বলেন, আমাদের লোকসংখ্যা কম। তবুও আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি রিক্সাওয়াদের সতর্ক করার জন্য। তারপরও আমাদের অগোচরে তারা ভাড়া বেশি নেয়ার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ আসছে। তারা হয়তো দুয়েক দিনে কয়েক টাকা বেশি আয় করতে পারবে কিন্তু তা তাদের জন্য লজ্জাজনক। তারা যেন ভাড়া বেশি  নিতে না পারে এজন্য আমরা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি ।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৫:৪৬:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪
১১১ বার পড়া হয়েছে

ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে রাবিতে রিক্সা ভাড়ার নৈরাজ্য

আপডেট সময় ০৫:৪৬:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪

 

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে রিক্সার নৈরাজ্য। ভর্তি পরিক্ষার্থীদের অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে প্রশাসনের নির্ধারিত ভাড়ার দুই থেকে তিন গুন পর্যন্ত ভাড়া হাকাচ্ছেন রিক্সাওয়ালারা । তাদের এই দৌরাত্ম্যে ভোগান্তিতে পড়ছেন দূর-দূরান্ত থেকে আসা ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা।

 

সরেজমিনে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজলা গেট থেকে কৃষি অনুষদের ভাড়া নিচ্ছেন ৮০ টাকা। কিন্তু একই পথের ভাড়া বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নির্ধারিত ভাড়া ৩০ টাকা। এছাড়াও অভিযোগ রয়েছে এক জায়গার কথা বলে অন্য জায়গায় নামিয়ে দেয়ার। এ বিষয়ে প্রতিবাদ করলে রিক্সাওয়ালারা বলেন অন্য জায়গায় দেখেন। প্রশাসনের কোন নির্দেশনা না মেনে উল্টো ভোগান্তি বাড়াতেই ব্যস্ত রিক্সাওয়ালারা।

 

এই বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ঢাকা থেকে আগত অভিভাবক হারুনুর রশিদ। তিনি বলেন, স্টেশন থেকে উঠেছি চারুকলা অনুষদে যাব বলে। এখন আমাকে প্যারিস রোডে নামিয়ে দিয়েছেন। আমি অসুস্থ একজন মানুষ, রিক্সাওয়ালার এমন দৌরাত্ম্যে দূূর থেকে আসা আমরা অভিভাবক ও ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা অসহায় হয়ে পড়েছি।

 

সাদাব হোসাইন নামে ভর্তিচ্ছু এক শিক্ষার্থী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এক জায়গায় যাব বলে উঠেছি। নামিয়ে দিল অন্য জায়গায়। আবার ভাড়াও প্রায় দ্বিগুণ নিয়েছে। এখন আমি পথ চিনতেছি না আবার পরিক্ষারও সময় হয়ে গেছে।

 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক মো. মাহফুজুর রহমান বলেন, আমাদের লোকসংখ্যা কম। তবুও আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি রিক্সাওয়াদের সতর্ক করার জন্য। তারপরও আমাদের অগোচরে তারা ভাড়া বেশি নেয়ার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ আসছে। তারা হয়তো দুয়েক দিনে কয়েক টাকা বেশি আয় করতে পারবে কিন্তু তা তাদের জন্য লজ্জাজনক। তারা যেন ভাড়া বেশি  নিতে না পারে এজন্য আমরা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি ।