ঢাকা ১১:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

মাইনুল ইসলাম রাজু, রাবি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষিকার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং যৌন হয়রানির দায়ে অভিযুক্ত চিকিৎসক ডা. রাজু আহমেদের দ্রুত বিচারের দাবি জানানো হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়ায় এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই দাবি জানান ভুক্তভোগী পরিবার।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে শিক্ষিকা বলেন, যৌন অপকর্মের দায়ে অভিযুক্ত  রাজুর বিরুদ্ধে  উপচার্য বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করে। বহিস্কার হওয়ার পর থেকে আমার সাথে যারা কাজ করছে তাদের হুমকি দেয়, মামলার ভয় দেখাচ্ছে এবং মীমাংসা করার আহ্বান করেন রাজু। ঘটনার ১৪ দিন পর গত ১৩ নভেম্বর রাজু আমিসহ আরো ২ জনকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মিথ্যা মামলা দেয়। যা সম্পুর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট এবং আসল ঘটনাকে অন্যখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছে।

এসময় তিনি আরো বলেন, রাজু  আমেনা ক্লিনিকে ঘটে যাওয়া ঘটনাকে অস্বীকার করে। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করে। রাজুর সাথে বেশকিছু  সাবেক এবং বর্তমান শিক্ষক ও কর্মকর্তা জড়িত রয়েছে। রাজুর দ্বারা কৃত যৌন হয়রানির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এবং আমার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানাই। রাজু নিয়মাবলি পরোয়া না করে দীর্ঘদিন যাবত সে অনেককে নিপিড়ন করে যাচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক শফিকুন্নবী সামাদী, মনোবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক মাহবুবা কানিজ কেয়া,বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ রাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক  মুবাররা সিদ্দিকাসহ আরো অনেক শিক্ষক-শিক্ষার্থী  উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য,গত ১৩ নভেম্বর ডা. রাজু আহমেদ (১৪৯/৪৪৮/৩২৩/৩২৪) ধারায় ভুক্তভোগীসহ ২ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। অভিযুক্ত রাজু বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রের উপ-প্রধান চিকিৎসক এবং রাজশাহী মহানগর যুবলীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ১২:৩৫:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২৩
৯৯ বার পড়া হয়েছে

মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

আপডেট সময় ১২:৩৫:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২৩

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষিকার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং যৌন হয়রানির দায়ে অভিযুক্ত চিকিৎসক ডা. রাজু আহমেদের দ্রুত বিচারের দাবি জানানো হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়ায় এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই দাবি জানান ভুক্তভোগী পরিবার।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে শিক্ষিকা বলেন, যৌন অপকর্মের দায়ে অভিযুক্ত  রাজুর বিরুদ্ধে  উপচার্য বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করে। বহিস্কার হওয়ার পর থেকে আমার সাথে যারা কাজ করছে তাদের হুমকি দেয়, মামলার ভয় দেখাচ্ছে এবং মীমাংসা করার আহ্বান করেন রাজু। ঘটনার ১৪ দিন পর গত ১৩ নভেম্বর রাজু আমিসহ আরো ২ জনকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মিথ্যা মামলা দেয়। যা সম্পুর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট এবং আসল ঘটনাকে অন্যখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছে।

এসময় তিনি আরো বলেন, রাজু  আমেনা ক্লিনিকে ঘটে যাওয়া ঘটনাকে অস্বীকার করে। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করে। রাজুর সাথে বেশকিছু  সাবেক এবং বর্তমান শিক্ষক ও কর্মকর্তা জড়িত রয়েছে। রাজুর দ্বারা কৃত যৌন হয়রানির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এবং আমার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানাই। রাজু নিয়মাবলি পরোয়া না করে দীর্ঘদিন যাবত সে অনেককে নিপিড়ন করে যাচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক শফিকুন্নবী সামাদী, মনোবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক মাহবুবা কানিজ কেয়া,বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ রাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক  মুবাররা সিদ্দিকাসহ আরো অনেক শিক্ষক-শিক্ষার্থী  উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য,গত ১৩ নভেম্বর ডা. রাজু আহমেদ (১৪৯/৪৪৮/৩২৩/৩২৪) ধারায় ভুক্তভোগীসহ ২ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। অভিযুক্ত রাজু বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রের উপ-প্রধান চিকিৎসক এবং রাজশাহী মহানগর যুবলীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক।