ঢাকা ০৬:২৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মোহাম্মদীয়া আস্ সালাফিয়া মাদ্রাসা বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন!

রাকিব হাসান সাগর, নারায়ণগঞ্জ

 

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে মোহাম্মদীয়া আস্ সালাফিয়া নামে একটি মাদ্রাসা বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের অনুসারী ও স্থানীয় সাত গ্রামের বিভিন্ন মসজিদ মাদ্রাসার ইমাম,শিক্ষক ও গ্রামবাসী।

জঙ্গি স্টাইলে অন্যের জমি জবরদখল করে তারা এই মাদ্রাসাটি স্থাপন করে। চেলারচর গ্রামের মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে মোঃ মনির হোসেনের ক্রয়কৃত জমি একই গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে নূরে আলম তার সাঙ্গপাঙ্গদের নিয়ে জোর পূর্বক দখল করে।

এবং সেই জমিতে মাটি ভরাট করে মোহাম্মদীয়া আস্ সালাফিয়া নামের এই মাদ্রাসা নির্মাণ করে। মাদ্রাসা নির্মাণ কালিন সময় জমির প্রকৃত মালিক মোঃ মনির হোসেন সৌদিআরবে থাকায় তার বড় ভাই নূর মোহাম্মদ মাদ্রাসা নির্মানে বাধা দিলে,বাধা উপেক্ষার মাধ্যমে মাদ্রাসাটি নির্মাণ হয়।

পরবর্তীতে জমির মালিক ভুক্তভোগী মনির হোসেন তার জমি উদ্ধারে চেলারচর পঞ্চায়েত কমিটির কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) বিকালে উপজেলার শম্ভুপুরা ইউনিয়নের হোসেনপুর বাজারে এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় বক্তারা বলেন, মোহাম্মদীয়া আস্ সালাফিয়া মাদ্রাসায় কোমলমতি শিশুদেরকে কোরআন,হাদিস ও নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর মৌলিক আকিদার সঠিক দিক নির্দেশনার বিরুদ্ধে অপব্যাখ্যা শেখানো হচ্ছে।
যারা নবী রাসূলের নির্দেশ মানে না, নবী রাসূলের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মিথ্যে শিখায় তার কাফের। ইহুদীদের অর্থে এই মাদ্রাসা পরিচালনা হয়।
তারা কোরআন ও হাদিসের আলোকে নয়,তারা মওদুদীর দর্শন ও আকিদা প্রতিষ্ঠিত করতে চাচ্ছে। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদেরকে প্রলোভনের মাধ্যমে মাদ্রাসায় আসতে বাদ্য করছে।

অনতিবিলম্বে চেলারচর হোসেনপুর এলাকার সাধারণ মানুষদের মধ্যে বিভক্তি সৃষ্টিকারী ভয়ংকর আহলে হাদিস ফেতনার যাবতীয় কার্যক্রম বন্ধ করতে হবে। ইহুদীদের অর্থে পরিচালিত আহলে হাদিসের এই মাদ্রাসা ওখানে একটা আস্তানা গেড়েছে।

তারা সেই আস্তানায় শিশুদের ব্রেন ওয়াশের মাধ্যমে জঙ্গি উৎপাদনের কারখানা বানাচ্ছে।

মুসলমানদের ঈমান নষ্ট করার কাজে লিপ্ত রয়েছে। এইজন্য সমাজবাসীরা তাদের আগেই নিষেধ করেছে,সেই নিষেধ তারা মানেনি। বক্তারা তাদের বক্তব্যে চেলারচর এলাকা থেকে মোহাম্মদীয়া আস্ সালাফিয়া মাদ্রাসা বন্ধের দাবিতে প্রসাশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সোনারগাঁ উপজেলা আহালে সুন্নাত আল জামাতের সভাপতি মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম, মাওলানা ইমন হোসেন বাহারী, মাওলানা খন্দকার আবু নোমান তাহেরী, হাফেজ আনিসুর রহমান, মাওলানা আশিকুর রহমান, মাওলানা আবুল হাসান, সোনারগাঁ উপজেলা গাউছিয়া কমিটির সভাপতি নিজাম উদ্দিন প্রধান, সোনারগাঁ উপজেলা আহালে সুন্নাত আল জামাতের সদস্য ও গাউছিয়া কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ মোক্তার হোসেন,মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসুদ, চেলারচর পঞ্চায়েত কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আউয়াল প্রমুখ।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ১০:৪৯:৫৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২৪
৪১ বার পড়া হয়েছে

মোহাম্মদীয়া আস্ সালাফিয়া মাদ্রাসা বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন!

আপডেট সময় ১০:৪৯:৫৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২৪

 

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে মোহাম্মদীয়া আস্ সালাফিয়া নামে একটি মাদ্রাসা বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের অনুসারী ও স্থানীয় সাত গ্রামের বিভিন্ন মসজিদ মাদ্রাসার ইমাম,শিক্ষক ও গ্রামবাসী।

জঙ্গি স্টাইলে অন্যের জমি জবরদখল করে তারা এই মাদ্রাসাটি স্থাপন করে। চেলারচর গ্রামের মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে মোঃ মনির হোসেনের ক্রয়কৃত জমি একই গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে নূরে আলম তার সাঙ্গপাঙ্গদের নিয়ে জোর পূর্বক দখল করে।

এবং সেই জমিতে মাটি ভরাট করে মোহাম্মদীয়া আস্ সালাফিয়া নামের এই মাদ্রাসা নির্মাণ করে। মাদ্রাসা নির্মাণ কালিন সময় জমির প্রকৃত মালিক মোঃ মনির হোসেন সৌদিআরবে থাকায় তার বড় ভাই নূর মোহাম্মদ মাদ্রাসা নির্মানে বাধা দিলে,বাধা উপেক্ষার মাধ্যমে মাদ্রাসাটি নির্মাণ হয়।

পরবর্তীতে জমির মালিক ভুক্তভোগী মনির হোসেন তার জমি উদ্ধারে চেলারচর পঞ্চায়েত কমিটির কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) বিকালে উপজেলার শম্ভুপুরা ইউনিয়নের হোসেনপুর বাজারে এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় বক্তারা বলেন, মোহাম্মদীয়া আস্ সালাফিয়া মাদ্রাসায় কোমলমতি শিশুদেরকে কোরআন,হাদিস ও নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর মৌলিক আকিদার সঠিক দিক নির্দেশনার বিরুদ্ধে অপব্যাখ্যা শেখানো হচ্ছে।
যারা নবী রাসূলের নির্দেশ মানে না, নবী রাসূলের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের মিথ্যে শিখায় তার কাফের। ইহুদীদের অর্থে এই মাদ্রাসা পরিচালনা হয়।
তারা কোরআন ও হাদিসের আলোকে নয়,তারা মওদুদীর দর্শন ও আকিদা প্রতিষ্ঠিত করতে চাচ্ছে। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদেরকে প্রলোভনের মাধ্যমে মাদ্রাসায় আসতে বাদ্য করছে।

অনতিবিলম্বে চেলারচর হোসেনপুর এলাকার সাধারণ মানুষদের মধ্যে বিভক্তি সৃষ্টিকারী ভয়ংকর আহলে হাদিস ফেতনার যাবতীয় কার্যক্রম বন্ধ করতে হবে। ইহুদীদের অর্থে পরিচালিত আহলে হাদিসের এই মাদ্রাসা ওখানে একটা আস্তানা গেড়েছে।

তারা সেই আস্তানায় শিশুদের ব্রেন ওয়াশের মাধ্যমে জঙ্গি উৎপাদনের কারখানা বানাচ্ছে।

মুসলমানদের ঈমান নষ্ট করার কাজে লিপ্ত রয়েছে। এইজন্য সমাজবাসীরা তাদের আগেই নিষেধ করেছে,সেই নিষেধ তারা মানেনি। বক্তারা তাদের বক্তব্যে চেলারচর এলাকা থেকে মোহাম্মদীয়া আস্ সালাফিয়া মাদ্রাসা বন্ধের দাবিতে প্রসাশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সোনারগাঁ উপজেলা আহালে সুন্নাত আল জামাতের সভাপতি মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম, মাওলানা ইমন হোসেন বাহারী, মাওলানা খন্দকার আবু নোমান তাহেরী, হাফেজ আনিসুর রহমান, মাওলানা আশিকুর রহমান, মাওলানা আবুল হাসান, সোনারগাঁ উপজেলা গাউছিয়া কমিটির সভাপতি নিজাম উদ্দিন প্রধান, সোনারগাঁ উপজেলা আহালে সুন্নাত আল জামাতের সদস্য ও গাউছিয়া কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ মোক্তার হোসেন,মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসুদ, চেলারচর পঞ্চায়েত কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আউয়াল প্রমুখ।