ঢাকা ০৭:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

লাভের আশায় সিন্ডিকেট তৈরি করলে কঠোর ব্যবস্থা: খাদ্যমন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদ

ধান-চালের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে অতিরিক্ত মুনাফা করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টা থেকে ৪টা পর্যন্ত টানা তিন ঘণ্টা বগুড়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে করণীয় নির্ধারণে অংশীজনদের সাথে মতবিনিময় সভা প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ভরা মৌসুমে চালের মূল্য বাড়ার কোন কারন থাকতে পারেনা। গুজব ছড়িয়ে মূল্য বাড়ার প্রবণতা থেকে দূরে থাকার আহ্বান জানান তিনি।

এ সময় মন্ত্রী বলেন, সরকার ব্যবসায়ীদের হয়রানি করে কেউ যদি কোন অনিয়ম করেন তার বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করা হবে। নির্বাচনের আগে ও পরের এই সময়ে অনেক ব্যবসায়ী লোভ সামলাতে না পেরে চালের মূল্য বাড়িয়ে বাজার অস্থিতিশীল করেছিলেন। এখন সেই সুযোগ বন্ধ করতে নতুন আইন তৈরি করা হয়েছে। চালের বস্তার গায়ে উৎপাদন তারিখ, মূল্য ও কোন জাতের চাল তা লিপিবদ্ধ করতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, সকলে দেশকে ভালোবাসলেই দেশ থেকে ক্ষুধা নিরুদ্দেশ হবে এবং আমাদের স্বাধীনতা স্বার্থক হবে।

বগুড়ার জেলা প্রশাসক মো: সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- খাদ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব প্রদীপ কুমার পাল, খাদ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক আব্দুল্লাহ আল মামুন, জেলা পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তীসহ বগুড়ার বিভিন্ন চালকল মালিক, চালের পাইকারি ও খুচরা ব্যবসায়ী।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৮:১৯:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
৪২ বার পড়া হয়েছে

লাভের আশায় সিন্ডিকেট তৈরি করলে কঠোর ব্যবস্থা: খাদ্যমন্ত্রী

আপডেট সময় ০৮:১৯:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ধান-চালের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে অতিরিক্ত মুনাফা করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টা থেকে ৪টা পর্যন্ত টানা তিন ঘণ্টা বগুড়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে করণীয় নির্ধারণে অংশীজনদের সাথে মতবিনিময় সভা প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ভরা মৌসুমে চালের মূল্য বাড়ার কোন কারন থাকতে পারেনা। গুজব ছড়িয়ে মূল্য বাড়ার প্রবণতা থেকে দূরে থাকার আহ্বান জানান তিনি।

এ সময় মন্ত্রী বলেন, সরকার ব্যবসায়ীদের হয়রানি করে কেউ যদি কোন অনিয়ম করেন তার বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করা হবে। নির্বাচনের আগে ও পরের এই সময়ে অনেক ব্যবসায়ী লোভ সামলাতে না পেরে চালের মূল্য বাড়িয়ে বাজার অস্থিতিশীল করেছিলেন। এখন সেই সুযোগ বন্ধ করতে নতুন আইন তৈরি করা হয়েছে। চালের বস্তার গায়ে উৎপাদন তারিখ, মূল্য ও কোন জাতের চাল তা লিপিবদ্ধ করতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, সকলে দেশকে ভালোবাসলেই দেশ থেকে ক্ষুধা নিরুদ্দেশ হবে এবং আমাদের স্বাধীনতা স্বার্থক হবে।

বগুড়ার জেলা প্রশাসক মো: সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- খাদ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব প্রদীপ কুমার পাল, খাদ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক আব্দুল্লাহ আল মামুন, জেলা পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তীসহ বগুড়ার বিভিন্ন চালকল মালিক, চালের পাইকারি ও খুচরা ব্যবসায়ী।