ঢাকা ০৮:২৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শর্তাবলি ও নীতিমালা

ব্যবহারের শর্তাবলি

পাঠক ও ভিজিটরদের আমরা দেশবার্তা২৪নিউজ এবং এর বিভিন্ন ওয়েবসাইট, কনটেন্ট, সেবা ও অ্যাপ্লিকেশন ‘ব্যবহারের শর্তাবলি’ পড়তে স্বাগত জানাই। ডব্লিউডব্লিউডব্লিউ, ডিজিটাল ও সামাজিক যোগাযোগ প্ল্যাটফর্ম, এসএমএস, আরএসএস ফিড—নানা পথে পাঠকেরা আমাদের কনটেন্ট পড়ার জন্য আসতে পারেন। বিভিন্ন ডিভাইসের মাধ্যমে আমাদের কনটেন্টে প্রবেশ করা সম্ভব, সেসব নিছক কম্পিউটার, মুঠোফোন ও পিডিএর মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। আমাদের কনটেন্ট সেবা গ্রহণ করার মাধ্যমে বা কনটেন্ট, ছবি ও তথ্য দেখা বা পাঠের মাধ্যমে পাঠক ও দর্শনার্থীরা আমাদের ‘ব্যবহারের শর্তাবলি’ মেনে নিচ্ছেন বলে আমরা ধরে নেব। একই সঙ্গে তাঁরা দেশবার্তা২৪নিউজ ‘গোপনীয়তা নীতি’ মেনে নিচ্ছেন বলেও ধরে নেওয়া হবে।
পাঠকের আপত্তি বা বক্তব্য গ্রহণ করা বা না করার এখতিয়ার দেশবার্তা২৪নিউজের। দেশবার্তা২৪নিউজের সব পাঠককে এই ‘ব্যবহারের শর্তাবলি’ মেনে চলতে হবে। তাঁরা তা না মানলে বা ব্যবহারের শর্তাবলি-পরিপন্থী কোনো কিছু ঘটলে গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট স্থগিত করা থেকে তাঁদের ওয়েবসাইটে প্রবেশ ইত্যাদি নানা কিছুর ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রয়োগ করা হতে পারে। দেশবার্তা২৪নিউজের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করা কিংবা অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করার অর্থ হলো, গ্রাহক বা দর্শনার্থীরা দেশবার্তা২৪নিউজের সেবা নিচ্ছেন এবং ‘ব্যবহারের শর্তাবলি’ মেনে নিতে সম্মতি দিচ্ছেন। এই সেবার মধ্যে আছে লেখা, ছবি, গ্রাফিকস, অডিও, ভিডিও, সফটওয়্যার ইত্যাদি।

মেধাসম্পদের অধিকার

দেশবার্তা২৪নিউজের কনটেন্ট, লোগো, স্বত্ব, ট্রেডমার্ক, পেটেন্ট, লেখা, ছবি, গ্রাফিকস, ডোমেইন নেম, অডিও, ভিডিও এবং প্রথম আলোর সঙ্গে সম্পর্কিত মেধাসম্পদ ও ব্র্যান্ডের অন্যান্য বৈশিষ্ট্য ও নাম প্রথম আলো এবং এর লাইসেন্সধারীর মালিকানাধীন। প্রথম আলোর কিংবা এর লাইসেন্সধারীর মেধাসম্পদে বাণিজ্যিক বা অবাণিজ্যিক কোনো উদ্দেশ্যেই ব্যবহারকারী কোনো অধিকার দাবি করতে পারবেন না। এ ছাড়া প্রথম আলোর কনটেন্ট দিয়ে ব্যবহারকারী নতুন কিছু বানাতেও পারবেন না। স্বত্ব বা মেধাসম্পদ লঙ্ঘন করা হলে প্রথম আলো কর্তৃপক্ষ আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে পারবে। 

আমাদের সেবা: আপনার ব্যবহার

পাঠক ও ভিজিটরদের শুধু আইনগতভাবে বৈধ কাজে কিংবা পাঠের লক্ষ্যে দেশবার্তা২৪নিউজের সাইটের সেবা নিতে হবে। ওয়েবসাইট ও অ্যাপ্লিকেশনের অডিও-ভিজ্যুয়াল উপাদান কেবলই দেখা ও শোনার জন্য, এর বাইরে আর কিছুর জন্য দেশবার্তা২৪নিউজের অনুমতি দেয় না। দেশবার্তা২৪নিউজের সামাজিক মাধ্যমে তার কনটেন্ট ভাগাভাগির জন্য পাঠকদের উদ্বুদ্ধ করে। তবে আমাদের কনটেন্ট সামাজিক বা ডিজিটাল মাধ্যমে অবশ্যই অবিকৃতভাবে এবং দেশবার্তা২৪নিউজের কনটেন্ট হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে পরিবেশন করতে হবে। আমাদের ওয়েবসাইট হ্যাক করা নিষিদ্ধ। কনটেন্টের নিরাপত্তা বিধানকে পাশ কাটানোও নিষিদ্ধ।

সেবাগ্রহণকারী ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান বাণিজ্যিক বা অবাণিজ্যিক যা-ই হোন না কেন, আমাদের সেবা ব্যবহার করা যাবে কেবলই অবাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে।দেশবার্তা২৪নিউজের গ্রাহক ও পাঠকেরা এর সেবা ও মেধাসম্পদে প্রবেশাধিকার পান কিছু নিয়মানুগ সীমাবদ্ধতা মেনে; যেমন ব্যবহারকারীরা বিদ্যমান সেবা কেবল ব্যক্তিগত ও অবাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করতে পারেন। বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে আমাদের কোনো কনটেন্ট ব্যবহার বা বিক্রি করা যাবে না, তবে দেশবার্তা২৪নিউজের পরিবেশিত ব্যবহারকারীর নিজের সৃষ্ট কনটেন্টের ক্ষেত্রে তা প্রযোজ্য হবে না। প্রথম আলোর কনটেন্ট লক্ষ্য করে ব্যবহারকারীরা উসকানিমূলক বা আক্রমণাত্মক ভাষা ও ছবি ব্যবহার বা মন্তব্য করতে পারবেন না।

কনটেন্ট সরিয়ে নেওয়া

ওয়েবসাইট ও অ্যাপ্লিকেশন থেকে দেশবার্তা২৪নিউজের নিজের ক্ষমতাবলে যেকোনো সময় যেকোনো কনটেন্ট সরিয়ে নিতে পারে। ওয়েবসাইট থেকে কনটেন্ট, গেম বা অ্যাপ সরিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে পাঠক বা গ্রাহকেরা প্রথম আলোর অনুরোধ অগ্রাহ্য করতে পারবেন না। দেশবার্তা২৪নিউজের বা এর সেবা প্রত্যাহার করে নিলে তা হতে পারে।

নিষিদ্ধ ও অননুমোদিত ব্যবহার

পাঠক দেশবার্তা২৪নিউজের কোনো রাজনৈতিক দল, বর্ণবাদ, সাম্প্রদায়িকতা বা কোনো লিঙ্গবৈষম্যবাদী তৎপরতার সঙ্গে যুক্ত করতে পারবেন না এবং প্রতিষ্ঠানের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে পারবেন না। দেশবার্তা২৪নিউজ বা কোনো ব্যক্তির মানহানি, মানুষকে হেনস্তা ও নিপীড়ন, আদালতের কার্যক্রম নিয়ে আদালত অবমাননার পরিস্থিতি সৃষ্টি করার মতো আচরণ নিষিদ্ধ। অনৈতিক, আক্রমণাত্মক ও দুর্বোধ্য মন্তব্য বা ছবি আপলোড করা যাবে না। একইভাবে মন্তব্য বা ছবি পোস্ট করার মাধ্যমে ব্যক্তিগত আক্রমণও করা যাবে না।

ব্যবহারকারীর ডিভাইসের সুরক্ষা

এ ক্ষেত্রে ব্যবহারকারীদের নিজের সুরক্ষা নিজেদের নিশ্চিত করতে হবে। ভাইরাস, ম্যালওয়্যার বা এ-জাতীয় ক্ষতিকর কোনো কিছুর আক্রমণে ডিভাইসের ক্ষতি হলে তার দায় দেশবার্তা২৪নিউজের নেবে না। তৃতীয় পক্ষের কনটেন্টে প্রবেশ করার কারণে ডিভাইসের ক্ষতি হলে দেশবার্তা২৪নিউজ সে জন্য দায়ী হবে না। এর মধ্যে গুগলের বিজ্ঞাপন থাকতে পারে, তবে ব্যাপারটা শুধু এটুকুর মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়। যে কনটেন্ট দেশবার্তা২৪নিউজ সৃষ্টি করেনি, তা দেশবার্তা২৪নিউজের ওয়েবসাইটে প্রদর্শিত হলেও তৃতীয় পক্ষের কনটেন্ট হিসেবে বিবেচিত হবে।

মার্ক, কনটেন্ট ও ছবি আদান-প্রদানে নিষেধাজ্ঞা

বাণিজ্যিক বা যেকোনো কারণে পাঠকদের ছাপ বা মার্ক, কনটেন্ট ও ছবি ভাগাভাগি বা প্রচার করা নিষিদ্ধ। তবে কনটেন্ট দেশবার্তা২৪নিউজের সৃষ্ট হলে এবং অনুমোদন দেওয়া থাকলে কনটেন্ট, ছবি বা মার্ক ভাগাভাগি করার সময় সূত্র উল্লেখ করতে হবে। প্রথম আলোর সৃষ্ট কনটেন্ট ও ছবির স্বত্ব পাঠকের নয়।

অন্য ওয়েবসাইটে স্থানান্তর

দেশবার্তা২৪নিউজের ওয়েবসাইট থেকে পাঠক অন্য কোনো ওয়েবসাইটে, এমনকি অনাকাঙ্ক্ষিত ওয়েবসাইটে স্থানান্তরিত হলেও তার দায় প্রথম আলোর নয়।

তৃতীয় পক্ষের কনটেন্ট

তৃতীয় পক্ষের কনটেন্ট, অর্থাৎ যে কনটেন্ট দেশবার্তা২৪নিউজের সৃষ্টি করেনি, দেশবার্তা২৪নিউজের কোনোভাবেই তার দায় বহন করবে না। সে কনটেন্ট দেশবার্তা২৪নিউজের প্রদর্শিত হলেও তৃতীয় পক্ষের বলে বিবেচিত হবে।

গোপনীয়তা নীতি

‘গোপনীয়তা নীতি’ এই নীতিমালার অবিচ্ছেদ্য অংশ। যেসব শর্ত অভিন্ন বা সমরূপ, সেগুলো বাদে ‘গোপনীয়তা নীতি’র সব শর্ত রেফারেন্স হিসেবে এতে গৃহীত হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

দেশবার্তা২৪নিউজের ওয়েবসাইট ও মোবাইল অ্যাপে যেসব বিজ্ঞাপন পরিবেশিত হয়, সেগুলোর মালিকানা তৃতীয় পক্ষের। তবে তারা পাঠকদের তথ্য সংগ্রহ করতে পারে এবং অন্য পক্ষের সঙ্গে তা আদান-প্রদানও করতে পারে। এর ফলে কোনো সমস্যা উদ্ভূত হলে তার দায় প্রথম আলো নেবে না। এ ধরনের বিজ্ঞাপন দেশবার্তা২৪নিউজের ওয়েবসাইটে প্রদর্শিত হলেও তার দায় প্রথম আলোর নয়।

পরিবর্তন

দেশবার্তা২৪নিউজের যেকোনো সময় তার যেকোনো নীতিমালায় সংশোধন, পরিবর্তন, পরিবর্ধন, পরিমার্জন আনার অধিকার রাখে। তবে সেসব পরিবর্তন ওয়েবসাইটে তুলে দেওয়া হবে। এরপর গ্রাহক যখন ওয়েবসাইট ব্যবহার করবেন, তখন ধরে নেওয়া হবে, তিনি সে পরিবর্তনগুলো মেনে নিয়েই সাইটে প্রবেশ করেছেন। পাঠক তখন তা মেনে চলতে বাধ্য। সে জন্য কোথায়, কখন, কী পরিবর্তন এসেছে, পাঠকদের তা লক্ষ রাখতে আমরা অনুরোধ করছি।

কুকির ব্যবহার

থম আলো ব্যবহারকারীর কুকিভিত্তিক পরিসংখ্যান সংগ্রহ করে না। ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্যও দেশবার্তা২৪নিউজের সংরক্ষণ করে না। এমনও হতে পারে যে পাঠক বা দর্শনার্থীর দেশবার্তা২৪নিউজের ওয়েবসাইটে প্রবেশের মাধ্যমে তৃতীয় পক্ষ ব্যবহারকারীর কুকি সংগ্রহ করতে পারে, যার ওপর দেশবার্তা২৪নিউজের নিয়ন্ত্রণ নেই। সে জন্য পাঠকদের তৃতীয় পক্ষের ওয়েবসাইট সতর্কতার সঙ্গে দেখা উচিত।
কোনো গ্রাহক দেশবার্তা২৪নিউজে নিবন্ধন করলে তার সত্যতা প্রতিপাদনের জন্য ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করা হয়। তবে দেশবার্তা২৪নিউজের সে তথ্য তৃতীয় পক্ষের সঙ্গে আদান-প্রদান করে না। দেশবার্তা২৪নিউজের পাঠকদের প্রয়োজনীয় তথ্য জানাতে বা দেশবার্তা২৪নিউজ-সম্পর্কিত কোম্পানির তথ্য পাঠাতে এসব তথ্য ব্যবহার করা হতে পারে।

দেশবার্তা২৪নিউজের যোগাযোগ

সময়ে সময়ে ইমেইল, ফোন ও এসএমএসের মাধ্যমে যোগাযোগ করে বিভিন্ন অনুষ্ঠান, প্রচারণা, প্রতিযোগিতা, জরিপ ও প্রতিক্রিয়ার জন্য দেশবার্তা২৪নিউজের পাঠকদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারে।

ব্যবহারকারীদের কনটেন্ট

দেশবার্তা২৪নিউজের পাঠকেরা সময়-সময় মন্তব্য, ছবি ও ভিডিওর মতো বিভিন্ন পোস্ট ও কনটেন্ট তুলতে পারেন। সে ক্ষেত্রে পাঠকদের নিশ্চিত করতে হবে যে তাঁরাই এসব কনটেন্টের স্রষ্টা কিংবা অন্য কেউ তার স্রষ্টা হলে ব্যবহারের অনুমতি তিনি দিয়েছেন। একই সঙ্গে পাঠককে এটাও নিশ্চিত করতে হবে যে তাঁর কনটেন্টে অশ্লীলতা, হয়রানি, প্রতারণা, হুমকি, আক্রমণাত্মক, অসম্মানজনক, অবৈধ বা কারও গোপনীয়তা লঙ্ঘন করার মতো উপাদান নেই।

পাঠকদের কোনো কনটেন্ট দেশবার্তা২৪নিউজ অনুমোদন করে না বা তার সত্যতা নিশ্চিত করে না।
এ ছাড়া দেশবার্তা২৪নিউজের ওয়েবসাইট ব্যবহার করার সময় পাঠকদের বেশ কিছু বিষয়ে সম্মত হতে হবে। সেগুলো হলো: ১. অন্যের ক্ষতি বা হানি করার জন্য উদ্দেশ্যমূলকভাবে পোস্ট দেওয়া যাবে না; ২. দেশবার্তা২৪নিউজের ওয়েবসাইটে এমন কিছু পোস্ট করা যাবে না, যাতে কেউ অন্যায়ের বা হয়রানির শিকার হয় বা কারও অবমাননা ঘটে কিংবা কোনো ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গ জাতি-ধর্ম-বর্ণ-গোত্র-জাতিসত্তা-নাগরিকত্ব-বয়স-বৈবাহিক অবস্থা-যৌন অভ্যাস-সামরিক অবস্থা ও অসক্ষমতার কারণে নিপীড়নের শিকার হন; ৩. এমন কোনো সফটওয়্যার বা কোড পোস্ট বা প্রচার করা যাবে না, যাতে দেশবার্তা২৪নিউজের ওয়েবসাইটের কার্যক্রম ব্যাহত বা ধ্বংস হতে পারে; হার্ডওয়্যার বা টেলিযোগাযোগ যন্ত্রের ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য; ৪. এমন কোনো কনটেন্ট আপলোড বা প্রচার করা যাবে না বা দেশবার্তা২৪নিউজের ওয়েবসাইট-সংক্রান্ত ব্যবস্থা নেওয়া যাবে না, যাতে অপরাধমূলক কার্যক্রম উৎসাহিত হতে পারে বা দেওয়ানি অথবা ফৌজদারি দায় সৃষ্টি হতে পারে।

দেশবার্তা২৪নিউজের নিজ ক্ষমতাবলে পাঠক বা ব্যবহারকারীর যেকোনো কনটেন্ট পূর্বঘোষণা ছাড়াই যেকোনো সময় প্রত্যাহার করার অধিকার রাখে।

কোনো ক্ষেত্রে পাঠকের কোনো পোস্ট দেশবার্তা২৪নিউজের বা কোনো যুক্তিশীল ব্যক্তির কাছে অযথার্থ, আপত্তিকর বা আক্রমণাত্মক ঠেকলে, সে আচরণ প্রতিহত করার জন্য সংশ্লিষ্ট পোস্টদাতার ব্যক্তিগত তথ্য দেশবার্তা২৪নিউজ ব্যবহার করতে পারে।

কোনো ক্ষেত্রে পাঠকের কোনো পোস্ট দেশবার্তা২৪নিউজের বা কোনো যুক্তিশীল ব্যক্তির কাছে অযথার্থ, আপত্তিকর বা আক্রমণাত্মক ঠেকলে, সে আচরণ প্রতিহত করার জন্য সংশ্লিষ্ট পোস্টদাতার ব্যক্তিগত তথ্য দেশবার্তা২৪নিউজ ব্যবহার করতে পারে।

দেশের বাইরে থেকে ওয়েবসাইটে প্রবেশ

বাংলাদেশের বাইরে থেকে পাঠকেরা যেসব ব্যক্তিগত তথ্য দেবেন, তা ‘ব্যবহারের শর্তাবলি’ ও ‘গোপনীয়তা নীতি’ অনুযায়ী প্রক্রিয়া করা হবে।

দায় পরিত্যাগ

দেশবার্তা২৪নিউজের ব্যবহারকারীদের সর্বোত্তম সেবা দিতে চায়। তবে বিভিন্ন মাধ্যমে পরিবেশিত তথ্য—যেমন ছবি বা ভিডিও—এসব যে সব ক্ষেত্রেই যথাযথ হবে, তার নিশ্চয়তা নেই। প্রথম আলোতে পরিবেশিত সব কনটেন্ট শুধু তথ্যের জন্য, পরামর্শের জন্য নয়। প্রথম আলোর সব সেবা ওয়ারেন্টি ও গ্যারান্টি ছাড়া পরিবেশিত হয়।

কনটেন্ট দেখা ও পোস্ট করা

পাঠক ও দর্শনার্থীরা যখন দেশবার্তা২৪নিউজের ওয়েবসাইটে কনটেন্ট পোস্ট করেন বা অন্যদের দেওয়া কনটেন্ট দেখেন, তখন তাঁরা নিজেদের ঝুঁকি বা বিবেচনা মনে রেখেই সেটি করেন। কনটেন্টের বস্তুনিষ্ঠতার ওপর তাঁরা যে আশ্বাস বা বিশ্বাস স্থাপন করেন, তার ভিত্তি তাঁদের নিজেদের বিবেচনাবোধ।

তৃতীয় পক্ষের দায়

দেশবার্তা২৪নিউজের যে তথ্য পরিবেশিত হয়, তার একটি অংশ তৃতীয় পক্ষের প্রদত্ত। তারা প্রথম আলোর নিয়ন্ত্রণাধীন নয়। তাদের তথ্যের যথার্থতা নিশ্চিত করা সে কারণে দেশবার্তা২৪নিউজের পক্ষে সম্ভব নয়। তাই প্রথম আলো বা তৃতীয় পক্ষের পরিবেশিত তথ্যে আস্থা স্থাপনের আগে সেই তথ্যের সত্যতা যাচাই করার জন্য দেশবার্তা২৪নিউজের পরামর্শ দেয়।

ব্যাঘাত, ক্রস কানেকশন, ওয়েবসাইট বা অ্যাপ্লিকেশনের অপ্রাপ্যতা

দেশবার্তা২৪নিউজের সারাক্ষণ তার সেবা চালু রাখার সর্বোচ্চ চেষ্টা করে। তবে যার ওপর প্রথম আলোর নিয়ন্ত্রণ নেই—যেমন ইন্টারনেটের সমস্যা—তেমন কোনো কারণে, কিংবা তৃতীয় পক্ষের কনটেন্ট ডাউনলোড বা তাতে অংশগ্রহণ করার কারণে সমস্যা হলে বা সেই সেবায় ব্যাঘাত ঘটলে তার দায় দেশবার্তা২৪নিউজের নেবে না অথবা ব্যবহারকারীর কাছে দায়বদ্ধ থাকবে না। দেশবার্তা২৪নিউজের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত কনটেন্ট বা সেবার কারণে কারও ক্ষতি হলে প্রথম আলো বাংলাদেশে বিদ্যমান আইন অনুযায়ী তার দায় নেবে না।

আইন

দেশবার্তা২৪নিউজের ‘ব্যবহারের শর্তাবলি’ এবং গ্রাহকের সঙ্গে তার সম্পর্ক বাংলাদেশের বিদ্যমান আইনের আলোকে পরিচালিত হয়। এ ছাড়া তথ্য সংরক্ষণ, প্রকাশ, ফাঁস বা তারিখ প্রভৃতি নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হলে তা আর্বিট্রেশন অ্যাক্ট, ২০০১ অনুসারে সালিসের মাধ্যমে নিষ্পত্তি হবে। সালিস অনুষ্ঠিত হবে ঢাকায় এবং ট্রাইব্যুনালের সদস্যসংখ্যা হবে তিন। এর পূর্ণাঙ্গ এখতিয়ার থাকবে আদালতের হাতে। যাঁরা ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে সেবা নেবেন বা প্রথম আলোর অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করবেন, নাগরিকত্ব, অবস্থান, আবাসস্থল বা ব্যবসাস্থল-নির্বিশেষে তাঁদের ক্ষেত্রে এই নীতিমালা প্রযোজ্য হবে।

প্রত্যাহার করা

কখনো কোনো পাঠক আমাদের বিপণনসংক্রান্ত ইমেইল গ্রহণ করতে না চাইলে খুব সহজেই তাঁরা সেটা করতে পারেন। প্রতিটি ইমেইলের নিচে আনসাবস্ক্রাইব অপশনে ক্লিক করেই পাঠকেরা তা করতে পারেন।

সংশোধন নীতিমালা

আমরা প্রতিদিন যে পরিমাণে খবর দেশবার্তা২৪নিউজের ওয়েব পোর্টালে প্রকাশ করি, তাতে সমস্ত সতর্কতা সত্ত্বেও অনিচ্ছাকৃত ভুল থেকে যাওয়া অস্বাভাবিক নয়। অনিচ্ছাকৃত হলেও যেকোনো ভুলের জন্যই আমরা দুঃখিত। ভুল তথ্য সংশোধন করে পাঠককে জানানো সংবাদমাধ্যম হিসেবে আমাদের কর্তব্য। যথাযথ নিয়ম মেনে ভুল সংশোধন ও প্রকাশ করে পাঠকের গোচরে আনি। ভুল নজরে এলে আমরা নিজের উদ্যোগে তা সংশোধন করি। তবে পাঠকের চোখেও কোনো ভুল ধরা পড়লে তাঁরা আমাদের তা জানাতে পারেন। আমরা যাচাই করে সে ভুল সংশোধন করব।

  1. কোনো ভুল আমাদের নজরে এলে বা পাঠকেরা জানালে আমরা সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদক এবং বিভাগীয় প্রধানকে তা জানাই। এরপর সে তথ্য যাচাই করে ইতিপূর্বে প্রকাশিত সংবাদে সে তথ্য সংশোধন করি।
  2. ভুল তথ্য ছাপা পত্রিকা বা অনলাইন যেখানেই প্রকাশিত হোক না কেন, তা দেশবার্তা২৪নিউজের নীতিমালা অনুযায়ী সংশোধন করি। দেশবার্তা২৪নিউজের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও কোনো ভুল তথ্য প্রকাশিত হয়ে থাকলে তা সংশোধন করা হয়।
  3. সংশোধিত খবরটির নিচে আমরা সেই সংশোধনের কথা প্রকাশ করি। সেখানে ‘সংশোধনী’ শিরোনামের নিচে ভুলের কথা জানিয়ে কী সংশোধন করা হয়েছে, তা লিখে দিই। সেখানে সংশোধন করার তারিখ ও সময় উল্লেখ করি।
  4. সংশোধনী কেবল ভুল তথ্যের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য হয়। ভুল বানান বা বাক্য সংশোধন করা হলে তা জানানো হয় না।
  5. আমরা সাধারণত সম্পূর্ণ লেখা প্রত্যাহার করি না। অনিবার্য কারণে সম্পূর্ণ লেখা প্রত্যাহার করা হলে কেবল শিরোনামটি রেখে পুরো লেখা সরিয়ে দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে শিরোনামের নিচে লেখাটি অপ্রকাশিত রাখার কারণ আমরা জানিয়ে দিই।
  6. প্রকাশিত কোনো সংবাদের প্রতিবাদ এলে আমরা তা সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদকের বক্তব্যসহ প্রকাশ করি। তবে প্রতিবাদের সঙ্গে কোনো আইনি বিষয় জড়িত থেকে থাকলে আইনজীবীর সঙ্গে আলোচনা করে ব্যবস্থা নেওয়া হয়।
  7. ব্রেকিং নিউজের ক্ষেত্রে সঠিক খবর দেওয়ার প্রক্রিয়াটি ভিন্ন। কোনো কোনো ক্ষেত্রে এ ধরনের খবরে ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে তথ্য পরিবর্তিত হতে থাকে; যেমন কোনো দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বা কোনো ঘটনায় অর্থের পরিমাণ বাড়তে বা কমতে পারে। এসব ক্ষেত্রে সংশোধনী প্রকাশ না করে প্রতিবেদনটি নিয়ম অনুযায়ী হালনাগাদ করা হয়।
  8. সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে—ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম, টিকটক ইত্যাদিতে—প্রচারিত কোনো লেখা বা গ্রাফিক কার্ডে দেওয়া তথ্য ভুল হলে গুরুত্বভেদে তা সংশোধন বা প্রত্যাহার করা হয়। এক্ষেত্রে আগের লেখা বা কার্ডের স্ক্রিনশটনসহ সংশোধনীটি পাঠকদের পরিবেশন করি।

মন্তব্য প্রকাশের নীতিমালা

  • বাংলাদেশের প্রচলিত আইন লঙ্ঘন করে কোনো মন্তব্য করা যাবে না।
  • দেশীয় বা দেশের বাইরের কোনো ব্যক্তি, জাতি, গোষ্ঠী, ভাষা ও ধর্মের প্রতি অবমাননামূলক বা কারও অনুভূতিতে আঘাত দিতে পারে এমন কোনো মন্তব্য করা যাবে না।
  • মন্তব্য অশ্লীল ও অশালীন ইঙ্গিতপূর্ণ কোনো শব্দ, শব্দবন্ধ বা বাক্য ব্যবহার করা যাবে না।
  • কাউকে হেয় প্রতিপন্ন করতে অবমাননামূলকভাবে কোনো প্রাণীবাচক নাম দেওয়া যাবে না, নাম বিকৃত করা যাবে না।
  • কাউকে ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণ করা যাবে না, কাউকে ভয় দেখানো বা হুমকি দেওয়া যাবে না।
  • এমন কোনো নাম বা ছদ্মনাম (ইউজার নেম বা নিক) ব্যবহার করা যাবে না যা উদ্দেশ্যমূলক, আপত্তিকর বা ইঙ্গিতপূর্ণ।
  • মন্তব্যে কোনো লিংক দেওয়া যাবে না।
  • ইংরেজি হরফে বাংলায় মন্তব্য করা যাবে না
  • দৃষ্টিকটু বানান ভুল ও অসম্পূর্ণ বা অসংলগ্ন বাক্যের মন্তব্য প্রকাশ করা হবে না
  • দেশবার্তা২৪নিউজ কর্তৃপক্ষ যে কোনো মন্তব্য বাতিলের অধিকার রাখে।