ঢাকা ০৬:২৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাভারে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের উপর হামলা অভিযোগ 

নিজস্ব সংবাদ

সাভারে স্বতন্ত্র প্রার্থীর পোস্টার আগুনে পোড়াসহ সমর্থকদের উপর হামলা ও প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ পাওয়া গেছে অজ্ঞাত ২০/৩০ জনের বিরুদ্ধে।

বুধবার দিবাগত রাতে সাভারের তালবাগ এলাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইফুল ইসলামের ট্রাক মার্কা সমর্থকরা পোস্টার লাগাতে গেলে অজ্ঞাত ব্যাক্তিরা তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ সাইফুল ইসলামের পোস্টার পুড়িয়ে ফেলে। এরপর সাভারের কোথাও সাইফুল ইসলামের পোস্টার লাগাতে দেখলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দেয় অজ্ঞাত আসামীরা।

এঘটনায় বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সাভার মডেল থানায় অজ্ঞাত ২০/৩০ জনের নামে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগী শাহীন আলম।

ভুক্তভোগীরা হলেন- (১) মোঃ শাহীন আলম(৩২), (২) মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন(৪২), (৩) মোঃ বিল্লাল হোসেন(৩০), (৪) মোঃ রশিদ মিয়া(২৫), (৫) রফিকুল(২৪) ও মোঃ সুজন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টার দিকে সাভার তালবাগ এলাকায় নির্বাচনী পোস্টার লাগানোর সময় প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেল যোগে অজ্ঞাত ২০/৩০ জন এসে পোস্টার লাগানোর সময় অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে অজ্ঞাত আসামীরা। এসময় ভুক্তভোগীরা প্রতিবাদ করলে, অজ্ঞাত আসামীরা ভুক্তভোগীদের এলোপাথারীভাবে কিল, ঘুষি ও লাথি মারতে থাকে। এঘটনায় ভুক্তভোগীদের শরীরের বিভিন্ন স্থান জখম হয়। পরে তারা প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান।

ভুক্তভোগী শাহীন আলম বলেন, আমরা সাভার থানাস্ট্যান্ডের থেকে তালবাগের রাস্তায় যাই স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইফুল ইসলামের ট্রাক মার্কা পোস্টার লাগানোর জন্য। এসময় বেশ কয়েকটি প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেল রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলো। আমাদের দেখে গাড়িগুলো থেমে যায়। সামনের একটি প্রাইভেটকারের একটি গ্লাস খুলে আমাদের বলে তোরা এতো রাতে কি করোছ? আমি বললাম আমরা সাইফুল ভাইয়ের ট্রাক মার্কার পোস্টার লাগাই। সাইফুল ভাইয়ের ট্রাক মার্কার কথা শুনেই আমাদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করলো। আমি তাকিয়ে দেখি যিনি আমাদের গালিগালাজ করছে তিনি হলেন আমাদের বর্তমান এমপি এনাম সাহেব। তাৎক্ষণিক এমপি এনাম সাহেব বলে উঠলো ধর ওদের। পরে এনাম সাহেবের নেতৃত্বে আমাকেসহ সবাইকে কিল, ঘুষি, লাথি যে যেভাবে পারলো আমাদেরকে মারলো। পরে তারই নেতৃত্বে আমাদের কাছে থাকা পঁচিশ থেকে তিন হাজার পোস্টার তার সামনেই আগুনে পুড়িয়ে ফেলে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৭:৩৭:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ ডিসেম্বর ২০২৩
১৮৩ বার পড়া হয়েছে

সাভারে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের উপর হামলা অভিযোগ 

আপডেট সময় ০৭:৩৭:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ ডিসেম্বর ২০২৩

সাভারে স্বতন্ত্র প্রার্থীর পোস্টার আগুনে পোড়াসহ সমর্থকদের উপর হামলা ও প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ পাওয়া গেছে অজ্ঞাত ২০/৩০ জনের বিরুদ্ধে।

বুধবার দিবাগত রাতে সাভারের তালবাগ এলাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইফুল ইসলামের ট্রাক মার্কা সমর্থকরা পোস্টার লাগাতে গেলে অজ্ঞাত ব্যাক্তিরা তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ সাইফুল ইসলামের পোস্টার পুড়িয়ে ফেলে। এরপর সাভারের কোথাও সাইফুল ইসলামের পোস্টার লাগাতে দেখলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দেয় অজ্ঞাত আসামীরা।

এঘটনায় বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সাভার মডেল থানায় অজ্ঞাত ২০/৩০ জনের নামে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগী শাহীন আলম।

ভুক্তভোগীরা হলেন- (১) মোঃ শাহীন আলম(৩২), (২) মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন(৪২), (৩) মোঃ বিল্লাল হোসেন(৩০), (৪) মোঃ রশিদ মিয়া(২৫), (৫) রফিকুল(২৪) ও মোঃ সুজন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টার দিকে সাভার তালবাগ এলাকায় নির্বাচনী পোস্টার লাগানোর সময় প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেল যোগে অজ্ঞাত ২০/৩০ জন এসে পোস্টার লাগানোর সময় অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে অজ্ঞাত আসামীরা। এসময় ভুক্তভোগীরা প্রতিবাদ করলে, অজ্ঞাত আসামীরা ভুক্তভোগীদের এলোপাথারীভাবে কিল, ঘুষি ও লাথি মারতে থাকে। এঘটনায় ভুক্তভোগীদের শরীরের বিভিন্ন স্থান জখম হয়। পরে তারা প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান।

ভুক্তভোগী শাহীন আলম বলেন, আমরা সাভার থানাস্ট্যান্ডের থেকে তালবাগের রাস্তায় যাই স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইফুল ইসলামের ট্রাক মার্কা পোস্টার লাগানোর জন্য। এসময় বেশ কয়েকটি প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেল রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলো। আমাদের দেখে গাড়িগুলো থেমে যায়। সামনের একটি প্রাইভেটকারের একটি গ্লাস খুলে আমাদের বলে তোরা এতো রাতে কি করোছ? আমি বললাম আমরা সাইফুল ভাইয়ের ট্রাক মার্কার পোস্টার লাগাই। সাইফুল ভাইয়ের ট্রাক মার্কার কথা শুনেই আমাদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করলো। আমি তাকিয়ে দেখি যিনি আমাদের গালিগালাজ করছে তিনি হলেন আমাদের বর্তমান এমপি এনাম সাহেব। তাৎক্ষণিক এমপি এনাম সাহেব বলে উঠলো ধর ওদের। পরে এনাম সাহেবের নেতৃত্বে আমাকেসহ সবাইকে কিল, ঘুষি, লাথি যে যেভাবে পারলো আমাদেরকে মারলো। পরে তারই নেতৃত্বে আমাদের কাছে থাকা পঁচিশ থেকে তিন হাজার পোস্টার তার সামনেই আগুনে পুড়িয়ে ফেলে।