ঢাকা ১২:৫১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিদ্ধিরগঞ্জে কাফনের কাপড় পাঠিয়ে হত্যার হুমকি

হাসান আহমেদ, নারায়ণগঞ্জ

কাফনের কাপড় পাঠিয়ে হত্যার হুমকি দিয়েছে সিদ্ধিরগঞ্জে ঢাকা বিভাগীয় ট্যাংক লরি মালিক সমিতির (জেড এ-১) সভাপতি অকিল উদ্দিন ভূঁইয়া (৬৭) নামে এক ব্যবসায়ীকে।

রোববার (৩১ মার্চ) ভোরে গোদনাইলে তার বাসার সামনে কে বা কাহারা একটি প্যাকেটে কাফনের কাপড়, সাবান, আতর, আগরবাতি, ব্লেড রেখে যায়।

এতে লেখা আছে, “অকিল তুই দুনিয়া থেকে বাহির হ এই লও প্রস্তুতি থাক।” এ ব্যাপারে অকিল ভুইঁয়া (রোববার) বিকেলে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (নং ১৭৯৭) করেন।

জানা গেছে, গোদনাইল বার্মাইর্ষ্টান এলাকায় পদ্মা ওয়েল কোম্পানির ডিপো অবস্থিত। এখান থেকে ৯ হাজার লিটার ধারণ ক্ষমতার ১২৭টি ট্যাংক লরি ঢাকা বিমানবন্দর টার্মিনালে বিমানের জ্বালানি তেল পরিবহনের কাজে নিয়োজিত থাকে। প্রভাবশালী কয়েকজন জ্বালানি তেল পরিবহন ব্যবসায়ী কোম্পানিকে পাঁচ লক্ষ টাকা জামানত দিয়ে ২০ হাজার লিটার ধারণ ক্ষমতার ট্যাংক লরি চালুর পায়তারা করছে। গতকাল (শনিবার) সমিতির এক সভায় জানানো হয় এতে সাধারণ পরিবহন ব্যবসায়ী, ড্রাইভার ও শ্রমিকগণ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। অকিল ভুঁইয়া সভায় জ্বালানি তেল পরিবহনে বিশৃঙ্খলার আশঙ্কায় বিশৃঙ্খলাকারীদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

অকিল ভুঁইয়ার ভগ্নীপতি শরিফুজ্জামান জানান, আজ (রোববার) ভোরে মসজিদ থেকে ফজর নামাজ পড়ে আমরা বাসাই যাই। সকাল ৭ টায় বৃষ্টির পর বাসার সামনে এসে কাফনের কাপড়ের একটি প্যাকেট পাওয়া যায়। গতকাল (শনিবার) সাধারণ ব্যবসায়ীদের পক্ষে নেতৃত্ব দেওয়ার কারণে যে কেউ ঘটনাটি ঘটাতে পারে আশঙ্কা করছি।

 

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক জানান, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

পদ্মা ওয়েল কোম্পানি লিমিটেডের চট্টগ্রামস্থ প্রধান কার্যালয়ের উপ-মহাব্যবস্থাপক (অপারেশন্স) আসিফ মালিক জানান, ট্যাংক লরির ধারণ ক্ষমতা পরিবর্তনের কোন সিদ্ধান্ত হয়নি। তাই বিশৃঙ্খলা হওয়ার সুযোগ নাই।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ১২:০২:৫১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১ এপ্রিল ২০২৪
৮৪ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জে কাফনের কাপড় পাঠিয়ে হত্যার হুমকি

আপডেট সময় ১২:০২:৫১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১ এপ্রিল ২০২৪

কাফনের কাপড় পাঠিয়ে হত্যার হুমকি দিয়েছে সিদ্ধিরগঞ্জে ঢাকা বিভাগীয় ট্যাংক লরি মালিক সমিতির (জেড এ-১) সভাপতি অকিল উদ্দিন ভূঁইয়া (৬৭) নামে এক ব্যবসায়ীকে।

রোববার (৩১ মার্চ) ভোরে গোদনাইলে তার বাসার সামনে কে বা কাহারা একটি প্যাকেটে কাফনের কাপড়, সাবান, আতর, আগরবাতি, ব্লেড রেখে যায়।

এতে লেখা আছে, “অকিল তুই দুনিয়া থেকে বাহির হ এই লও প্রস্তুতি থাক।” এ ব্যাপারে অকিল ভুইঁয়া (রোববার) বিকেলে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (নং ১৭৯৭) করেন।

জানা গেছে, গোদনাইল বার্মাইর্ষ্টান এলাকায় পদ্মা ওয়েল কোম্পানির ডিপো অবস্থিত। এখান থেকে ৯ হাজার লিটার ধারণ ক্ষমতার ১২৭টি ট্যাংক লরি ঢাকা বিমানবন্দর টার্মিনালে বিমানের জ্বালানি তেল পরিবহনের কাজে নিয়োজিত থাকে। প্রভাবশালী কয়েকজন জ্বালানি তেল পরিবহন ব্যবসায়ী কোম্পানিকে পাঁচ লক্ষ টাকা জামানত দিয়ে ২০ হাজার লিটার ধারণ ক্ষমতার ট্যাংক লরি চালুর পায়তারা করছে। গতকাল (শনিবার) সমিতির এক সভায় জানানো হয় এতে সাধারণ পরিবহন ব্যবসায়ী, ড্রাইভার ও শ্রমিকগণ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। অকিল ভুঁইয়া সভায় জ্বালানি তেল পরিবহনে বিশৃঙ্খলার আশঙ্কায় বিশৃঙ্খলাকারীদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

অকিল ভুঁইয়ার ভগ্নীপতি শরিফুজ্জামান জানান, আজ (রোববার) ভোরে মসজিদ থেকে ফজর নামাজ পড়ে আমরা বাসাই যাই। সকাল ৭ টায় বৃষ্টির পর বাসার সামনে এসে কাফনের কাপড়ের একটি প্যাকেট পাওয়া যায়। গতকাল (শনিবার) সাধারণ ব্যবসায়ীদের পক্ষে নেতৃত্ব দেওয়ার কারণে যে কেউ ঘটনাটি ঘটাতে পারে আশঙ্কা করছি।

 

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক জানান, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

পদ্মা ওয়েল কোম্পানি লিমিটেডের চট্টগ্রামস্থ প্রধান কার্যালয়ের উপ-মহাব্যবস্থাপক (অপারেশন্স) আসিফ মালিক জানান, ট্যাংক লরির ধারণ ক্ষমতা পরিবর্তনের কোন সিদ্ধান্ত হয়নি। তাই বিশৃঙ্খলা হওয়ার সুযোগ নাই।