ঢাকা ০১:৫৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

১ ডিসেম্বর থেকে ঢাকা-খুলনা রুটে চলবে ‘নকশীকাঁথা এক্সপ্রেস’

নিজস্ব সংবাদ

পদ্মা সেতু হয়ে গত ১ নভেম্বর থেকে চালু হয়েছিল দুই আন্তনগর ট্রেন সুন্দরবন ও চিত্রা এক্সপ্রেস। এবার আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে সেতু দিয়ে চলবে প্রথম কমিউটার ট্রেন ‘নকশীকাঁথা এক্সপ্রেস’।

গত ১৫ নভেম্বর বাংলাদেশ রেলওয়ের জেনারেল ম্যানেজার (পশ্চিম) এর পক্ষে সহকারী অপারেটিং সুপারিন্টেন্ডেন্ট আব্দুল আওয়াল স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

খুলনা থেকে পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকা আসবে কমিউটার ট্রেনটি। এর আগে এটি মেইল ট্রেন হিসেবে খুলনা থেকে গোয়ালন্দ রুটে চলাচল করতো। এবার বর্ধিত করে খুলনা-ঢাকা রুটে চলবে এবং মেইল ট্রেনের শ্রেণি পরিবর্তিত হয়ে কমিউটার ট্রেন হিসেবে চলবে।

খুলনা থেকে দৌলতপুর, নোয়াপাড়া, যশোর, মোবারকগঞ্জ, কোটচাঁদপুর, সায়দারপুর, আনসারবাড়ীয়া, উথলী দর্শনা হল্ট, চুয়াডাঙ্গা, মুন্দিগঞ্জ, আলমডাঙ্গা, হালসা, পোড়াদহ জং, কুষ্টিয়া কোর্ট, কুষ্টিয়া, কুমারখালী, খোকসা, মাছপাড়া, পাংশা, কালুখালী, বেলগাছি, রাজবাড়ী, খানখানাপুর, আমিরাবাদ, ফরিদপুর, বাবুয়া, তালমা, পুখুরিয়া, ভাঙ্গা, ভাঙ্গা জংশন, শিবচর, পদ্মা, মাওয়া, শ্রীনগর, নিমতলী ও গেন্ডারিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতি করে ঢাকা (কমলাপুর) রেলস্টেশনে থামবে।

যাত্রী উঠা-নামার সুবিধা না থাকায় আপাতত ভাঙ্গা জংশন স্টেশনে যাত্রাবিরতি থাকবে না।

বর্তমানে যশোর ক্যান্টনমেন্ট, মোমিনপুর, জয়রামপুর, জপতি, চড়াইকোল, সূর্যনগর স্টেশনের যাত্রা বিরতি প্রত্যাহার করা যেতে পারে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ০৮:৪৮:২১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ নভেম্বর ২০২৩
১৮১ বার পড়া হয়েছে

১ ডিসেম্বর থেকে ঢাকা-খুলনা রুটে চলবে ‘নকশীকাঁথা এক্সপ্রেস’

আপডেট সময় ০৮:৪৮:২১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ নভেম্বর ২০২৩

পদ্মা সেতু হয়ে গত ১ নভেম্বর থেকে চালু হয়েছিল দুই আন্তনগর ট্রেন সুন্দরবন ও চিত্রা এক্সপ্রেস। এবার আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে সেতু দিয়ে চলবে প্রথম কমিউটার ট্রেন ‘নকশীকাঁথা এক্সপ্রেস’।

গত ১৫ নভেম্বর বাংলাদেশ রেলওয়ের জেনারেল ম্যানেজার (পশ্চিম) এর পক্ষে সহকারী অপারেটিং সুপারিন্টেন্ডেন্ট আব্দুল আওয়াল স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

খুলনা থেকে পদ্মা সেতু হয়ে ঢাকা আসবে কমিউটার ট্রেনটি। এর আগে এটি মেইল ট্রেন হিসেবে খুলনা থেকে গোয়ালন্দ রুটে চলাচল করতো। এবার বর্ধিত করে খুলনা-ঢাকা রুটে চলবে এবং মেইল ট্রেনের শ্রেণি পরিবর্তিত হয়ে কমিউটার ট্রেন হিসেবে চলবে।

খুলনা থেকে দৌলতপুর, নোয়াপাড়া, যশোর, মোবারকগঞ্জ, কোটচাঁদপুর, সায়দারপুর, আনসারবাড়ীয়া, উথলী দর্শনা হল্ট, চুয়াডাঙ্গা, মুন্দিগঞ্জ, আলমডাঙ্গা, হালসা, পোড়াদহ জং, কুষ্টিয়া কোর্ট, কুষ্টিয়া, কুমারখালী, খোকসা, মাছপাড়া, পাংশা, কালুখালী, বেলগাছি, রাজবাড়ী, খানখানাপুর, আমিরাবাদ, ফরিদপুর, বাবুয়া, তালমা, পুখুরিয়া, ভাঙ্গা, ভাঙ্গা জংশন, শিবচর, পদ্মা, মাওয়া, শ্রীনগর, নিমতলী ও গেন্ডারিয়া স্টেশনে যাত্রা বিরতি করে ঢাকা (কমলাপুর) রেলস্টেশনে থামবে।

যাত্রী উঠা-নামার সুবিধা না থাকায় আপাতত ভাঙ্গা জংশন স্টেশনে যাত্রাবিরতি থাকবে না।

বর্তমানে যশোর ক্যান্টনমেন্ট, মোমিনপুর, জয়রামপুর, জপতি, চড়াইকোল, সূর্যনগর স্টেশনের যাত্রা বিরতি প্রত্যাহার করা যেতে পারে।