ঢাকা ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘৭২-এর সংবিধান নিয়ে দেশের প্রথম ভাস্কর্য নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে, উদ্ধোধন শনিবার

মোঃ সাহাদাৎ হোসেন, নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়

১৯৭২ সালের সংবিধানকেন্দ্রিক দেশের প্রথম ভাস্কর্য-স্থাপনার উদ্বোধন হবে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে, আগামীকাল ১৬ই ডিসেম্বর বিকেল সাড়ে চারটায়। এর নাম ধ্রুব ‘৭২ আর ভাস্কর্য-স্থাপনাটির রূপকার সৌমিত্র শেখর।

সংবিধানের চারটি মূলনীতির আলোকে সজ্জিত করে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান ও ব্যাবসায় প্রশাসন অনুষদ ভবনের সামনে হচ্ছে ‘ধ্রুব’৭২’ ভাস্কর্য। দীর্ঘ দু’বছর ধরে মাননীয় উপাচার্য ড. সৌমিত্র শেখর এই ভাস্কর্য-স্থাপনা নিয়ে ভেবেছেন এবং তারই সফল চিন্তার রূপদান সম্পন্ন হবে আগামীকাল। তিনিই আগামীকাল শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) বিজয় দিবসে ভাস্কর্যটি উদ্বোধনও করবেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের জয়ধ্বনি মঞ্চের সামনে অনুষদ ভবনে স্থাপিত চারটি পিলারে রংয়ের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এখন চলছে শেষ মুহূর্তের কাজ। বাহাত্তরের সংবিধানেরর চারটি মূলনীতি তথা জাতীয়তাবাদ, সমাজতন্ত্র, গণতন্ত্র ও ধর্মনিরপেক্ষতা ফুটে উঠবে ভাস্কর্যের চারটি পিলারে।

এ বিষয়ে রেজিস্ট্রার কৃষিবিদ ড. মো. হুমায়ুন কবীর বলেন, অনুষদ ভবনের সামনের চারটি পিলার অনেকদিন ধরেই শূন্য পড়ে ছিল। মাননীয় উপাচার্য স্যার তাঁর নিজস্ব চিন্তা ও পরিকল্পনার মধ্যে দিয়ে চারটি পিলারকে এই ভাস্কর্যে রূপদান করলেন। বাহাত্তরের সংবিধানকে ধারণ করে তিনি যে ধ্রুব’৭২ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিয়েছেন সেটি অনন্য সাধারণ। নিশ্চয়ই এটি পরিচিত পাবে ‘সংবিধান আঙিনা’ হিসেবে। উপাচার্য প্রফেসের ড. সৌমিত্র শেখর বলেন, ‘৭২-এর সংবিধানকেন্দ্রিক কোনো স্থাপনা বা ভাস্কর্য কোথাও আছে কি-না জানি না। আগামীকাল ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে এর একটি উদ্বোধন করা হবে। নাম: ধ্রুব ‘৭২। এই ভাস্কর্য সবসময় আগামী প্রজন্মকে আমাদের বাহাত্তরের সংবিধানের অসাম্প্রদায়িক চেতনার কথা স্মরণ করিয়ে দেবে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

আপডেট সময় ১২:৩৬:২২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২৩
১৮৮ বার পড়া হয়েছে

‘৭২-এর সংবিধান নিয়ে দেশের প্রথম ভাস্কর্য নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে, উদ্ধোধন শনিবার

আপডেট সময় ১২:৩৬:২২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২৩

১৯৭২ সালের সংবিধানকেন্দ্রিক দেশের প্রথম ভাস্কর্য-স্থাপনার উদ্বোধন হবে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে, আগামীকাল ১৬ই ডিসেম্বর বিকেল সাড়ে চারটায়। এর নাম ধ্রুব ‘৭২ আর ভাস্কর্য-স্থাপনাটির রূপকার সৌমিত্র শেখর।

সংবিধানের চারটি মূলনীতির আলোকে সজ্জিত করে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান ও ব্যাবসায় প্রশাসন অনুষদ ভবনের সামনে হচ্ছে ‘ধ্রুব’৭২’ ভাস্কর্য। দীর্ঘ দু’বছর ধরে মাননীয় উপাচার্য ড. সৌমিত্র শেখর এই ভাস্কর্য-স্থাপনা নিয়ে ভেবেছেন এবং তারই সফল চিন্তার রূপদান সম্পন্ন হবে আগামীকাল। তিনিই আগামীকাল শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) বিজয় দিবসে ভাস্কর্যটি উদ্বোধনও করবেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের জয়ধ্বনি মঞ্চের সামনে অনুষদ ভবনে স্থাপিত চারটি পিলারে রংয়ের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এখন চলছে শেষ মুহূর্তের কাজ। বাহাত্তরের সংবিধানেরর চারটি মূলনীতি তথা জাতীয়তাবাদ, সমাজতন্ত্র, গণতন্ত্র ও ধর্মনিরপেক্ষতা ফুটে উঠবে ভাস্কর্যের চারটি পিলারে।

এ বিষয়ে রেজিস্ট্রার কৃষিবিদ ড. মো. হুমায়ুন কবীর বলেন, অনুষদ ভবনের সামনের চারটি পিলার অনেকদিন ধরেই শূন্য পড়ে ছিল। মাননীয় উপাচার্য স্যার তাঁর নিজস্ব চিন্তা ও পরিকল্পনার মধ্যে দিয়ে চারটি পিলারকে এই ভাস্কর্যে রূপদান করলেন। বাহাত্তরের সংবিধানকে ধারণ করে তিনি যে ধ্রুব’৭২ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিয়েছেন সেটি অনন্য সাধারণ। নিশ্চয়ই এটি পরিচিত পাবে ‘সংবিধান আঙিনা’ হিসেবে। উপাচার্য প্রফেসের ড. সৌমিত্র শেখর বলেন, ‘৭২-এর সংবিধানকেন্দ্রিক কোনো স্থাপনা বা ভাস্কর্য কোথাও আছে কি-না জানি না। আগামীকাল ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে এর একটি উদ্বোধন করা হবে। নাম: ধ্রুব ‘৭২। এই ভাস্কর্য সবসময় আগামী প্রজন্মকে আমাদের বাহাত্তরের সংবিধানের অসাম্প্রদায়িক চেতনার কথা স্মরণ করিয়ে দেবে।